কক্সবাজারে মোড়ে মোড়ে সেনাদের অবস্থান

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কক্সবাজারে স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সহযোগীতায় মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশনের সেনাসদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সকালে রামু সেনানিবাস ১৪ বীরের টুআইসি মেজর আরিফ এবং জেলা প্রশাসনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মো. মোস্তফা জাবেদ কায়সারের যৌথ নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর একাধিক গাড়ি শহরের প্রধান সড়কসহ প্রতিটি এলাকাতে টহল দিতে দেখা যায়।

এ সময় সেনাসদস্যরা মাইকিং করে, লিফলেট বিতরণ করে এবং বাহিরে অবস্থানরত লোকদের ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য তাগিদ দেন। এ ছাড়া রাস্তাঘাটসহ যে কোনো জায়গায় বেশি লোকজন যেন সমবেত হতে না পারে, সবাই যেন নির্দিষ্ট সামাজিক দূরত্ব মেনে চলাফেরা করে এবং যথাযথভাবে সরকারি নির্দেশনাসমূহ মেনে চলে সেনাবাহিনী এই বিষয়গুলো নিশ্চিতের কাজে বেসামরিক প্রশাসনকে সহযোগিতা করছে।

এছাড়া সীমিত করা হয়েছে অপ্রয়োজনীয়ভাবে সাধারণ মানুষের চলাচল। সেনাবাহিনী মাঠে নামার পর থেকেই সাধারণ মানুষের বাহিরে আসার প্রবণতা কমে এসেছে। রাস্তাঘাটে খুব কমসংখ্যক মানুষের উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। অনেক এলাকা প্রায় জনমানবশূন্য। জেলার রাস্তাঘাট প্রায় ফাঁকা হয়ে পড়েছে।

আরও পড়ুন