কাশ্মীর ইস্যুতে ফের মধ্যস্থতায় করতে চেয়ে ইচ্ছাপ্রকাশ ডোনাল্ড ট্রাম্পের

কাশ্মীর ইস্যুতে ফের একবার মধ্যস্থতার কথা বললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন মুলুকে আজ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠক বসেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেখানেই এই ইচ্ছাপ্রকাশ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে ভারতের তরফে কোনও বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

এদিন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে পাশে বসিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, আমি কাশ্মীর সমস্যা মেটাতে ইচ্ছুক। কাশ্মীর সমস্যা দুদেশের ক্ষেত্রেই জটিল এক সমস্যা। আমরা চাই দ্রুত এই সমস্যার সমাধান হোক। তবে ভারত যদি চায় তাহলে কাশ্মীর সমস্যা সমধানে আমি মধ্যস্থতার ভূমিকাতে থাকতে পারি, সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

তবে এটাই প্রথমবার নয়। এর আগেও পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরানের মার্কিন সফরের সময় ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, “ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কাশ্মীর সমস্যার সমাধানে আমার সাহায্য চেয়েছেন৷ এই বিষয়ে সাহায্য করতে পারলে আমি খুবই খুশি হব। আমি দুই দেশের মধ্যস্থতাকারী হতে রাজি।”

তবে এই ধরণের কোনও কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেননি বলে পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছিল ভারতের বিদেশ মন্ত্রী৷ বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর সংসদে বিবৃতি দিয়ে বলেন, “এই সমস্যা ভারত পাকিস্তানের অভ্যন্তরীন সমস্যা, যা দ্বিপাক্ষিক আলোচনাতেই মিটবে। তৃতীয় কোন হস্তক্ষেপের সেখানে প্রয়োজন নেই।”

এরপর ফ্রান্সের জি-৭ সামিটের ফাঁকে দেখা হয়েছিল মোদী ও ট্রাম্পের। সেখানে খোদ ডোনাল্ড ট্রাম্পের পাশে বসে প্রধানমন্ত্রী স্পষ্টভাবে বলেছিলেন, ‘ভারত-পাক ইস্যুতে কারও মধ্যস্থতার দরকার নেই’। সেখানে গিয়ে মোদী বার্তা দিয়েছিলেন, ‘পাকিস্তানের সঙ্গে অনেক ধরনের দ্বিপাক্ষিক ইস্যু আছে। কোনোটাতেই আমরা তৃতীয় কোনও দেশকে বরদাস্ত করব না। আমরা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান খুঁজে বের করব।’ এ খবর দিয়েছে পার্সটুডে।

এবার ফের একবার সেই মধ্যস্থতার কথাই বললেন মার্কিন প্রসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত ভারতের তরে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন