ক্রিকেট দলের বর্তমান নির্বাচকদের নিয়ে বোমা ফাটালেন সাকেব প্রধান নির্বাচক

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) দল নির্বাচন নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে চলছে তুমুল সমালোচনা। এনিয়ে বোমা ফাটালেন সাবেক নির্বাচক ফারুক আহমেদ। বাংলাদেশ দলের সাম্প্রতিক দুরাবস্থার জন্য বর্তমান নির্বাচকদের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন ফারুক।

তার মতে, ‘বিসিবিতে এখন অনেক নির্বাচক আছে। বোর্ড পরিচালক, ম্যানেজার, ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান- তারা সবাই নির্বাচক। আমার মনে হয় সংখ্যাটা ৫-৭ জন। (২০১৬ সালের জুনে) যখন আমি প্রধান নির্বাচকের পদ থেকে সরে দাঁড়াই তখন ছিল দুজন। আমার সঙ্গে খালেদ মাহমুদ সুজন ম্যানেজার হিসেবে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় যুক্ত ছিলেন। এরপর শর্ত তৈরি হলো, ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধানও একজন নির্বাচকের ভূমিকায় থাকবে।’

‘এখন তো একজন নন। নির্বাচক আসলেই অনেকজন। ব্যাপারটা ইতিবাচক হলে আমি থাকতাম কিন্তু এই নিয়মে আমি কাজ করতে চাইনি। তাই প্রধান নির্বাচক পদের দাযিত্ব ছেড়ে দিয়েছি। দল যখন ভালো করবে তখন সবাই এর কৃতিত্ব নিতে চাইবে। যখন খারাপ করবে তখন একে অন্যকে দোষারোপ করবে। একে অন্যের দিকে আঙুল তুলবে। এটা আমার কাছে ভালো লাগেনি।’

‘দলের পারফরম্যান্স ভালো বা খারাপ এটা স্বাভাবিক একটা প্রক্রিয়া কিন্তু কথা হচ্ছে আমরা কি আমাদের কাজগুলো ঠিকঠাক করতে পেরেছি? আমরা যা নিয়ে শঙ্কা করছি তা হচ্ছে অন্যকিছু ঠিক মতো হচ্ছে কিনা। আমার মনে হয় নির্বাচনের দায়িত্ব এমন কাউকে দিতে হবে যে তার জবাবদিহিতার জায়গা থাকবে। একজন ক্রিকেটার যখন দলে সুযোগ পেল, কেন পেল? কেউ বাদ পড়লে কেন পড়ল এর ব্যাখ্যা বর্তমানে আমরা খুব একটা দেখি না।’

‘দল হারলে যে অস্থিরতা তৈরি হয় সেটাও প্রত্যাশিত নয়। যেহেতু আমরা নির্বাচকের কাজ ভালোমতো করছি না, তাই সহজেই অস্থিরতা তৈরি হয়ে যাচ্ছে। দুই-একটা ম্যাচ খারাপ হলে মনে হয় ঠিক হচ্ছে না, আবার অনেক ধরনের পরিবর্তন আনা হয়। আশা করব এসব বিষয়ে বোর্ড যেন একটু দক্ষতার পরিচয় দেয়।

আরও পড়ুন