খোলামেলা শুট করলেই কাজ পাওয়া যায়না

দেহব্যবসায় নিজের উপার্জনের পথ তৈরি করতে উচ্চপর্যায়ে এসকর্টের কাজ করতে শুরু করি। একটা সময় অপরাধ জগতের অন্ধকারে জড়িয়ে পড়ি।’ কথাগুলো বলছিলেন ওপার বাংলার অভিনেত্রী সায়ন্তনী গুহ ঠাকুরতা। সম্প্রতি একটি ওয়েব সিরিজের কাজ করেছেন তিনি। সেখানে নিজের অভিনীত চরিত্র সম্পর্কে এ কথাগুলা বলেন তিনি।

সদ্য শেষ হওয়া এই ওয়েব সিরিজের নাম ‘হেডকোয়ার্টার্স লালবাজার’। লালবাজারের বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে এই ওয়েব সিরিজটি পরিচালনা করেন সায়ন্তন ঘোষাল।

সায়ন্তনী বলেন, এখানে আমার চরিত্রের নাম রুবি যে কিনা এসকর্ট করে একটা সময় অপরাধ জগতের সাথে জড়িয়ে পড়ে। কাজটা করে খুব ভাল লাগছে।

তিনি আরও বলেন, এই মুহূর্তে আমি সিনেমা ছাড়া আর কিছু করছি না। খুব সুন্দর গল্পের একটা কাজ তাই ওয়েব সিরিজটিতে কাজ করেছি। কাজটা করতে পেরে ভাল লাগছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ খোলামেলা ছবি প্রকাশ করেন সায়ন্তনী। এ নিয়ে অনেক সময় শোবিজে বিতর্ক হয়েছে। খোলামেলা ফটোশুট, সুইমিং স্যুটে তাকে প্রায়ই দেখা যায়। এমন ফটোশুটের জন্যই কি কাজ পাওয়া? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, একদমই না। সুইমিং স্যুট পড়ে ছবি তুললেই যদি কাজ পাওয়া যেত, তা হলে ‘তিনকন্যা’ ছবিতে বাড়ির কাজের মেয়ের চরিত্র পেতাম না।

আসছে সেপ্টেম্বরেও নতুন একটা ছবি করতে যাচ্ছি। সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছি কিন্তু এখনও নাম ঘোষণা করা হয় নি। নতুন এই ছবিটিতে বাড়ির ভাল বউয়ের চরিত্র করবো। সুইম সুট পরার ইমেজ থাকলে এই ধরনের চরিত্র পেতাম না।

সুরিন্দর ফিল্মসের প্রযোজনায় ‘হেডকোয়ার্টার্স লালবাজার’ এই ওয়েব সিরিজটি হিন্দি আর বাংলা দুই ভাষাতেই হচ্ছে। এই গল্পের প্রথম সিরিজে আরও অভিনয় করছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী, গৌরব চক্রবর্তী, সৌরসেনী, অনির্বাণ ভট্টাচার্য প্রমুখ।

আরও পড়ুন