চীনে ছাড়া পেলেন হংকংয়ে ব্রিটিশ দূতাবাসের কর্মী

১৫ দিন চীনের হাতে বন্দি থাকার পর হংকংয়ের ব্রিটিশ দূতাবাসের কর্মী ছাড়া পেলেন। শনিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় সাইমন চ্যাং নামে ওই কর্মীর ফিরে আসার খবরটি জানিয়েছে তাঁর পরিবার। লেখা হয়েছে, ১৫দিন পর হংকংয়ে ফিরেছেন সাইমন। এই দুঃসময়ে পাশে থাকার জন্য সকলকে ধন্যবাদ। চ্যাং ফেরায় স্বস্তিতে ব্রিটিশ সরকারও।

গত ৮ আগস্ট থেকে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন হংকংয়ের ব্রিটিশ দূতাবাসের কর্মী সাইমন চ্যাং। তখন গণতন্ত্রকামী দেশবাসীর সরকার বিরোধী বিক্ষোভে ফুটছে গোটা হংকং। সীমান্তে অপেক্ষা করছে চীনা সেনাবাহিনী। সেসময় চীনে একটি বাণিজ্য সফরে গিয়েছিলেন চ্যাং। ফেরার পথেই তাঁকে শেনঝেন স্টেশনে আটক করে পুলিশ। অভিযোগ ছিল, আইন ভেঙে চ্যাং হংকং থেকে চীনে ঢুকেছেন। আর তাঁকে আটকে চীন কার্যত কড়া বার্তা দিয়েছিল।

চীনের বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিল অর্থাৎ হংকংয়ের আটকে থাকা বন্দিদের বিচারের জন্য চীনের হাতে তুলে দেওয়ার আইন কার্যকর করার তোড়জোড় শুরু হতেই গর্জে ওঠেন হংকংবাসী। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে সরকার-বিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয় সেখানে।

তিন মাস ধরে চলছে এই বিক্ষোভ। তাঁদের পরোক্ষে মদত যোগাচ্ছে ব্রিটেন, আগেই এই অভিযোগ তুলেছিল বেইজিং৷ চ্যাংয়ের আটকের পর চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং বলেন, ‘যে ব্যক্তির কথা আপনারা উল্লেখ করেছিলেন, তাঁকে শেনঝেন পুলিশ আটক করে রেখেছে। একটা বিষয় স্পষ্ট করা দরকার যে, আটক কনসুলেট কর্মী ব্রিটিশ নাগরিক নন। উনি হংকংয়ের বাসিন্দা। সুতরাং এটা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়।

আরও পড়ুন