জম্মু-কাশ্মিরে রোবট সেনা নামাচ্ছে ভারত

সীমান্তে নজরদারি বাড়ানোসহ জঙ্গি হামলা মোকাবিলায় ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মিরে রোবট সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনা করছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এই যন্ত্রমানব যেকোনও গ্রেনেড হামলা প্রতিরোধে বুক চিতিয়ে দাঁড়াবে।

প্রাথমিকভাবে ৫৫০টি রোবোটিক্স ইউনিট তৈরির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে ভারতের সেনা সদর দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, এই রোবট যেকোনও সময় ভাঁজ করে সহজে বহন করা যাবে। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এ রোবটগুলোর আয়ষ্কাল হবে অন্তত ২৫ বছর। দ্রুতই ভারত সেনাদের হাতে এই রোবটগুলো পৌঁছুবে।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, শুধু জঙ্গি প্রতিরোধই নয়, যেকোনও তল্লাশি কাজ ও অভিযানেও দক্ষ হবে এই রোবটগুলো।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এই রোবট এতটাই শক্তিশালী যে অনায়াসে সিঁড়ি ভাঙতে সক্ষম। গাছে চড়তে পারবে ক্ষিপ্রগতিতে। দক্ষতার সঙ্গে ঢুকে যেতে পারবে যেকোনও জঙ্গিঘাঁটিতে। গ্রেনেড নিক্ষেপ করলেও এই রোবটদের থামানো যাবে না।

তিনি জানান, এই রোবটগুলো আগুনে ঝাপ দেয়া, অন্তত ২০ সেন্টিমিটার গভীর পানির বাধা পেরিয়ে আসতে সক্ষম হবে।

নিয়ন্ত্রণরেখার ওপারে প্রতিনিয়ত আধুনিক অস্ত্র নিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে জঙ্গিরা। এক্ষেত্রে এই রোবটগুলো সুরক্ষা প্রাচীর হিসেবে কাজ করবে।

রোবটগুলোতে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন ক্যামেরা ও ট্রান্সমিশন সিস্টেম রাখা হবে। ক্যামেরার ব্যাপ্তি হবে ১৫০ থেকে ২০০ মিটার। দিনরাত যেকোনও সময় বিপদসংকুল এলাকায় ঢুকে ছবি ও তথ্য এনে দিতে পারবে এই রোবটগুলো। প্রয়োজনে জওয়ানদের কাছে অস্ত্র-সরঞ্জামও পৌঁছে দিতে পারবে এই যন্ত্রমানবেরা।

আর তখন জঙ্গিদের হামলা ও অনুপ্রবেশ ঠেকাতে জম্মু-কাশ্মিরে অভিযানের ছক কষতে অনেকটাই সহজ হবে ভারতীয় সেনাদের জন্য।

আরও পড়ুন