জারিন খানের শরীরে এত দাগ কীসের?

সেলিব্রেটিদের শরীরে প্রসারণজনিত দাগ মোটেও ভালো দেখাই না। শরীরের স্ট্রেচ মার্কসের কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আক্রমণের শিকার হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী জারিন খান।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেন জারিন। সেখানে জারিনের শরীরের স্ট্রেচ মার্কস নিয়ে তাকে ট্রোল করতে থাকেন অনেকেই। যদিও এ ক্ষেত্রে ট্রোলিংয়ের জবাব দিতে ভোলেননি জারিন। এ কাজে তার পাশে দাঁড়িয়েছেন বলিউড পাড়ার আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজের খবরে বলা হয়েছে, প্রায় ৫০ কেজির মতো ওজন কমিয়েছেন জারিন। ওজন কমানোর পরে ইনস্টাগ্রামে একটা ছবি প্রকাশ করেন তিনি। সেই ছবিতে তার শরীরের একটি অংশে স্ট্রেচ মার্কসের দাগ দেখা গেছে।

আর তাতেই ঝড় ওঠে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে, ট্রোল করা শুরু করেন অনেকেই। তবে এতে বসে থাকেননি জারিনের ভক্তরাও। তারাও এর জবাব দিয়েছেন। পাশাপাশি যারা তাকে সমর্থন করেছেন তাদের প্রশংসা করেছেন জারিন।

স্ট্রেচ মার্কসের বিষয়ে জারিন খান বলেন, ‘প্রায় ৫০ কেজিরও বেশি ওজন কমালে স্ট্রেচ মার্কস থাকাটা খুবই স্বাভাবিক। চিরকালই স্বাভাবিক শারীরিক সৌন্দর্যে বিশ্বাস করে এসেছি। তাই স্ট্রেচ মার্কস নিয়ে আমি মাথা ঘামাই না। ফটোশপ বা সার্জারি না করলে স্বাভাবিক মানুষের শরীর এমনই হয়।’

জারিনকে সমর্থন জানিয়ে আনুশকা লেখেন, ‘জারিন তুমি যেরকম, সেরকমই তুমি সুন্দর, সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী।’ আনুশকার এই স্ট্যাটাসের প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরাও। যেভাবে একজন অভিনেত্রী হয়ে আরেক অভিনেত্রীকে সাহস দিলেন, তারই আলোচনা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

আরও পড়ুন