জয়পুরহাটে আগাম রবি ফসল চাষ ১২৫০ হেক্টর লক্ষ মাত্রা ৪ হাজার

এম এ জলির রানা, জয়পুরহাটঃ

য়পুরহাটে চলতি আগাম রবি ফসল চাষ মৌসুমে ইতোমধ্যে প্রায় সাড়ে ১২শ হেক্টর জমি চাষাবাধের আওতায় এসেছে তবে এ বছর রবি চাষাবাদ মৌসুমে রবি ফসলের জন্য চাষাবাদের লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রায় ৪ হাজার হেক্টর জমি। জেলার সদর, পাঁচবিবি, কালাই, ক্ষেত লাল এবং জেলার আক্কেলপুর উপজেলাসহ পাঁচ উপজেলায় আগাম রবি ফসল
হিসাবে উন্নত জাতের শসা, করলা, বেগুন, ফুলকপি এবং পাতাকপিসহ বেশ কয়েক প্রজাতির ফসল রোপন করা হয়েছে বেশ কিছু দিন আগে।

এর মধ্যে শসা, করলা, বেগুন ক্ষেত থেকে কৃষক তুলতে শুরু করেছে। জয়পুরহাট সদরের কৃষক রফিকুল ইসলাম পাঁচবিবির মনোয়ার হোসেন এবং আক্কেলপুর উপজেলার ইমদাদুল হক বলেন জয়পুরহাট জেলা কৃষি সম্প্রসারণ
অধিদপ্তরের সার্বিক তত্বাবধানে এবং কৃষি মাঠ কর্মকর্তাদের যথাযথ সহযোগিতা এবং পরামর্শে চলতি রবি চাষ মৌসুমে আমরা চাষাবাদ শুরু করেছি আবহাওয়া ও অনুকুলে আছে ফসল উৎপাদনের গতানুগতি লক্ষণ এবার আগাম জাতের ফসলের মধ্যে রয়েছে উন্নত জাতের শসাঁ, বেগুন, করলা, ফুলকপি এবং পাতাকপিসহ বেশি কিছু ফসল রয়েছে। এরই মধ্যে
শসা, বেগুন, করলা তোলা শুরু হয়েছে। ফুল ও পাতাকপি বাজারে আসতে আরো বেশ কিছু সময় নিবে। অন্যান্য ফসলের উৎপাদন ভাল থাকলেও শসাঁর উৎপাদন আনুপাতিক হারে কিছুটা কম হবে বলে জানান কৃষকেরা ।

জয়পুরহাট জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুদেন্দ্রনাথ রায় উল্লেকিত তথ্য নিশ্চিত করে বলেন চলতি রবিচাষ মৌসুমে চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রায় চার হেক্টর জমি। এরি মধ্যে আগামজাতের ফসল শসাঁ, করলা, বেগুন, ফুলকপি ও পাতাকপি মিলিয়ে প্রায় সাড়ে ১২শ হেক্টর জমিতে চারা রোপন করা হয়েছে। কিছু ফসল উঠতে শুরু করেছে আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে উল্লেখ্য করে তিনি আরোও জানান যেহেতু রবি ফসল চাষাবাদের লক্ষ্য মাত্রা শেষ হয় নি সেহেতু উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা এবং ফসল শ্রেনীবিন্যাসে কোন ফসল কত হেক্টর হবে তাও উল্লেখ্য করা এখনা সম্ভব নয় বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন