টেকনাফে পুলিশের সাথে গোলাগুলি, দুই রোহিঙ্গা যুবক নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে ২ জন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলে খবরে প্রকাশ।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ১২টার দিকে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের জামিদুড়া চাইল্ড ফ্রেন্ডলি স্পেস অফিসের পেছনের পাহাড়ে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দু’টি এলজি, শর্টগানের সাতটি তাজা কার্তুজ ও নয় রাউন্ড কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় আহত হয়েছে ৩ পুলিশ। নিহতরা হলেন, মো. আব্দুল করিম (২৪) ও নেছার আহম্মদ প্রকাশ।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ গণমাধ্যমকে বলেন, যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক হত্যা মামলার কয়েকজন আসামি জাদিমুরা রোহিঙ্গা শিবিরের শিশুবান্ধব কেন্দ্রের পেছনে পাহাড়ের উপরে পানির ট্যাংকের পাশে অবস্থান করছে- এমন গোপন খবরে সেখানে অভিযান চালানো হয়।

কিন্তু উপস্থিত টের পেয়েই অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। এতে ঘটনাস্থলে এএসআই কাজী সাইফ উদ্দিন, কনস্টেবল নাবিল ও রবিউল ইসলাম আহত হন।

এ সময় আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে বলে জানান তিনি।

ওসি প্রদীপ দাশ বলেন, এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ২৮ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়েছে। এক পর্যায়ে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুইজনকে পাওয়া যায়। আশপাশে তল্লাশি চালানো হলে ঘটনাস্থল।

আরও পড়ুন