তিন আসনে উপনির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন যাঁরা

বেলা ১১টা থেকে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
আসলামুল হক মারা যাওয়ার পর ঢাকা-১৪ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়। সিলেট-৩ আসন শূন্য হয় মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী মারা গেলে। আর কুমিল্লা-৫ আসনের সাংসদ ছিলেন প্রয়াত সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু।

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুসারে, এই তিন আসনের উপনির্বাচনে আগামী ২৮ জুলাই ভোট গ্রহণ হবে। অবশ্য এর আগে ১৪ জুলাই এই তিন আসনের উপনির্বাচনের তারিখ ঠিক করা হয়েছিল। পরে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনায় নির্বাচন ২ সপ্তাহ পিছিয়ে দেওয়া হয়

 

উপনির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ ৪ থেকে ১০ জুন পর্যন্ত দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে। তিন আসনে ৯৪ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী দলীয় ফরম কেনেন। এর মধ্যে তৃণমূল নেতা, কেন্দ্রীয় নেতা, ব্যবসায়ী ও প্রবাসীরাও ছিলেন। তবে শুরু থেকেই দলের মধ্যে আলোচনা ছিল যে, এবার তৃণমূলের নেতারাই মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকবেন। কারণ, সাম্প্রতিক সময়ে যে সব উপনির্বাচন হয়েছে এর বেশির ভাগেই দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা কিংবা উপজেলা আওয়ামী

 

আরও পড়ুন