নিজের রহস্য ফাঁস করলেন রণবীর

ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছেন মাত্র আট বছর। আর তার মধ্যেই রণবীর সিংয়ের জনপ্রিয়তা আকাশ ছুঁয়েছে। বেশকিছু আইকনিক ছবিতে তাঁর অভিনয় করে বলিউডকে নতুন পথ দেখিয়েছে। আর সেই অভিনয়ের কাঁধে ভর করে আজকে বলাই যায় যে, এই মুহূর্তে দেশের অন্যতম সেরা অভিনেতাদের তালিকায় রণবীর তাঁর স্থান পাকা করে ফেলেছেন। ‘রামলীলা’, ‘বাজিরাও মাস্তানি’, ‘পদ্মাভাট’ বা ‘গালিবয়’ এর মতো ছবি রণবীরকে অগণিত ফ্যানের মনে জায়গা পেতে সাহায্য করেছে। শুধু তাই নয়, আগামী বছর তাঁর থেকে দর্শক উপহার পেতে চলেছেন ‘৮৩’ ও ‘তাখত’ এর মতো আশা জাগানো ছবি। তালিকায় রয়েছে ‘জয়েশভাই জোরদার’।

সম্প্রতি এই উত্থান সম্পর্কে রণবীরকে প্রশ্ন করা হয়েছিল। জানতে চাওয়া হয়েছিল ক্যারিয়ারের এই যাত্রাপথ সম্বন্ধে অভিনেতার মনোভাব। রণবীর জানিয়েছেন,‘এখন হয়তো আমি একটা ভালো সময়ের মধ্যে দিয়ে অগ্রসর হচ্ছি। কিন্তু শুরুর সেই দিনগুলো চিরকাল আমার মনে থাকবে। সেই ফোনের দিকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা তাকিয়ে থাকা আর অপেক্ষার দিনগুলো। যখন ভাবতাম যে ফোনটা বাজবে তো? আমি আদৌ কোনও ব্রেক পাব তো? সেটা ছিল খুব কঠিন সময়। মনোকষ্ট, অপমান, নাকচ হওয়ার মধ্যেও মনের জোর বজায় রাখতে হবে কারণ সেটাই একজনকে এগিয়ে যাওয়ার শক্তি জোগায়।’

সেইসঙ্গে রণবীর আরও জানিয়েছেন,‘আমার ক্ষেত্রে দুটো জিনিস মাথায় রেখেছিলাম। প্রথমত, অভিনয়টা আমার প্যাশন। আমি খ্যাতি বা অর্থ উপার্জনের জন্য অভিনয়ে আসতে চাইনি। দ্বিতীয়ত, নিজের উপর শুরু থেকেই অগাধ বিশ্বাস ছিল আমার। সবসময় নিজেকে বলতাম আমিই সেরা। কারণ নিজেকে সেটা বোঝাতে থাকলে একটা সময় ঠিক কিছু না কিছু ভালো হবে। প্রতিটা দিন নিজেকে বিশ্বাস করতাম। আর আজও আমি ঠিক একইভাবে নিজেকে বিশ্বাস করি।’

আরও পড়ুন