নেপালিদের পালাতে সহায়তাকারীর পরিচয় মিলেছে

রাজধানীতে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান চলার সময় সেগুনবাগিচার একটি ভবন থেকে ১৫ নেপালিকে পুলিশ পরিচয়ে পালাতে সহায়তাকারী তিনজনের একজনকে ‘শনাক্ত’ করা হয়েছে। ওই ব্যক্তি রমনা থানার কনস্টেবল বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

নেপালিদের পালাতে সহায়তা করার বিষয়টি পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) তদন্ত করছে বলে জানিয়ে রমনা অঞ্চলের উপ-কমিশনার সাজ্জাদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা জানতে পেরেছি তাদের একজন রমনা থানার কনস্টেবল দিপঙ্কর চাকমা। তিনি ছুটিতে ছিলেন এবং ছুটির পর তিনি থানায় যোগ দেননি। এ কারণে তাকে সাসপেন্ড করে কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরও বলেন, তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। যদিও অনেকেই বলেছে সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাওয়া ব্যক্তি দিপঙ্কর, তবে তিনি অফিসে না আসা পর্যন্ত নিশ্চিতভাবে এটা বলা যাবে না।

প্রসঙ্গত, ১৮ সেপ্টেম্বর রাজধানীর ফকিরাপুলের ফকিরাপুল ইয়ংমেনস ক্লাব, ওয়ান্ডারার্স ক্লাব, গুলিস্তানের মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়াচক্র এবং বনানীর গোল্ডেন ঢাকা বাংলাদেশে অভিযান চালায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ওইদিনের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, রাত ১০টা ৩৯ মিনিটে সেগুনবাগিচার সামিট হাসান লজ ভবনে পুলিশ পরিচয়ে প্রবেশ করেন তিন ব্যক্তি। তাদের পরনে পুলিশের পোশাক না থাকলেও, কাছে ওয়াকিটকি ছিল।

ভবন ত্যাগের আগে তারা সেখানে ৫০ মিনিট মতো অবস্থান করেন। যাওয়ার সময় তাদের একজনের হাতে একটি ব্যাগ ছিল বলে দেখা যায় সিসিটিভি ফুটেজে। এর কিছুক্ষণ পরেই ওই ভবনে থাকা ১৫ নেপালিকে ভবন থেকে বের হতে দেখা যায়।

আরও পড়ুন