নোয়াখালীতে সরকারি ভূমি দখল মুক্ত করতে জেলা প্রসাশকের নির্দেশ

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর নয় উপজেলার ৯২টি ইউপিতে সরকারি ভূমি দখল মুক্ত করতে সব ইউপি চেয়ারম্যানদের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রসাশক তন্ময় দাস। জেলা সদরের ধর্মপুর ইউপির সচিব, মো. শহীদুল ইসলাম জানান, ডিসির পত্র পাওয়ার পর থেকে ইউপির বিভিন্ন এলাকার বেদখল সরকারি ভূমি চিহিৃতের কাজ শুরু করেছি। সদর উপজেলা কর্মকর্তা ( ইউএনও) মো: আরিফুল ইসলাম সরদার জানান, জেলা প্রসাশক মহদয়ের এ উদ্যোগ বাস্তবায়নে এরইমধ্যে উপজেলার প্রত্যেক ইউপি
চেয়ারম্যান ও সচিবদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অচিরেই এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন হবে।

জেলা প্রসাশক তন্ময় দাস জানান, প্রত্যেক গ্রামের কিছু স্বার্থান্বেষী মানুষ নিজের সামান্য লাভের জন্য দেশের অনেক বড় বড় ক্ষতি করতে পিছপা হচ্ছে না। নিজের ক্ষুদ্রস্বার্থকে প্রাপধান্য দিতে গিয়ে বৃহত্তর পরিসরে দেশ মাতৃকার অপূরণীয় ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছেন। তিনি আরো জানান, ইচ্ছে মত ফসলি জমি নষ্ট করে পুকুর খনন, জমির মাটি কেটে ইট ভাটায়
পুড়ানো, ফুটপাত দখল করে দোকান নির্মাণ, সরকারি জমি দখল, নদী ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণ, খাল দখল করে জলবদ্ধতা সৃষ্টি, আবর্জনা ফেলে ড্রেন ভরাট, যততত্র যানবাহন পার্কিং করে রাস্তায় যানজট সৃষ্টি, বিল্ডিং কোর্ড না মেনে ভবন তৈরিসহ পরিবেশের মারাত্মক বিপর্যয় ডেকে আনছে ওইসব স্বার্থান্বেষী মহল। সরকারি ভূমি দখল মুক্ত করে নোয়াখালীকে একটি মডেল জেলা গড়ে তোলতে সব ইউপি চেয়ারম্যানদের গত৭ এপ্রিল থেকে আধা সরকারি পত্রে এ নির্দেশ দিয়েছি। এতে গুরুত্বপূর্ণ ১১টি সমস্যা নিরসন হবে।

You might also like