পদত্যাগ করছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী

ইতালির ক্ষমতাসীন জোটের শরিক মাত্তিও সালভিনির আক্রমণাত্মক চলমান বিতর্ক শেষ হওয়ার পরই পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্টে।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) স্থানীয় সময় বিকেলে সিনেটরদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখার সময় তিনি এ কথা বলেন।

বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংসদের এই রাউন্ড বিতর্ক শেষ হলেই তিনি ইতালির প্রেসিডেন্টের সাথে দেখা করতে যাবেন। সেখানেই তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এ সরকারের সাথে তার অভিজ্ঞতার কথা প্রেসিডেন্টকে জানাবেন এবং তার কাছে পদত্যাগ পত্র প্রদান করবেন।

এমনিতেই অর্থনৈতিক মন্দার কারণে ইউরোপের দেশগুলোর সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারছে নয়া ইতালি। তার উপর প্রধানমন্ত্রীর এই সাম্প্রতিক পদত্যাগের ঘোষণা দেশটিকে নতুন সংকটের দিকে ঠেলে দিল।খবর চায়না নিউজের।

প্রসঙ্গত, গত বছরের চার মার্চ ইতালিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নির্দিষ্ট কোনও দল সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সরকার গঠন নিয়ে শুরু হয় অনিশ্চয়তা। নির্বাচনে ফাইভ স্টার পায় ৩২ শতাংশ ভোট। লীগ পায় ১৮ শতাংশ ভোট। এই দুই দলের জোট কন্টেকে প্রধানমন্ত্রী করার বিষয়ে সম্মত হয়।

এর আগে ৫৩ বছর বয়সী স্বল্প পরিচিত আইনের অধ্যাপক কন্টে ফাইভ স্টার আন্দোলনের সমর্থন পান সে সময়। আন্দোলনটি দেশটির তৃণমূল পর্যায়ের প্রতিবাদ থেকে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ইতালি প্রথাবিরোধী রাজনৈতিক দলের এমন জনসমর্থন পাওয়ায় জার্মানি ও ফ্রান্সসহ ওই এলাকায় বেশিরভাগ রাজনৈতিক দলই বিস্মিত হয়। কারণ এই প্রথম পশ্চিম ইউরোপের বড় কোনও দেশে এমন প্রথাবিরোধী দল সরকার গঠন করেছিল।

আরও পড়ুন