পরিদর্শক ছাড়াই একদিনে তিন কোর্সের পরীক্ষা!

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আইন বিভাগের সান্ধ্যকালীন কোর্সে হল পরিদর্শক ছাড়াই বিভাগের স্টোররুমে একদিনে তিন কোর্সের পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় পরীক্ষা কমিটির আহবায়ক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাজ্জাদুর রহমান টিটুকে সান্ধ্যকালীনসহ সকল একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ বিষয়টি জানানো হয়।

অফিস আদেশে বলা হয়, গত ১৮ সেপ্টেম্বর আইন বিভাগের সান্ধ্যকালীন নবম ব্যাচের এক শিক্ষার্থীর প্রথম সেমিস্টারের পরীক্ষা নেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বিধি লঙ্ঘন করে ওইদিন টানা নয় ঘন্টা তিনটি (১০৫, ১০৬, ১০৭) কোর্সের পরীক্ষা নেওয়া হয়।

পরীক্ষা তিনটি কোনো ক্লাসরুমে না নিয়ে বিভাগের স্টোর রুমে নেওয়া হয়। যেখানে কোনো পরিদর্শক উপস্থিত ছিলেন না। পরিদর্শক না থাকায় ওই শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অসাধুপায় অবলম্বন করেন। এছাড়া ওই পরীক্ষার প্রশ্নপত্র দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকও
প্রণয়ন করেননি।

এ ঘটনায় গত ১৯ সেপ্টেম্বর আইন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. নুরুন্নাহার ও ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর এসব অভিযোগ পৃথকভাবে লিখিত আকারে জমা দেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী ড. সাজ্জাদুর রহমান টিটুকে পরীক্ষার শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও দায়িত্বে অবহেলার দায়ে সান্ধ্যকালীনসহ সকল একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন।

একইসাথে এ ঘটনায় তার বিরূদ্ধে কেন আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবেনা তা আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন