পাকিস্তানে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ হলো পাবজি

বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় অনলাইন গেম প্লেয়ার আননোন’স ব্যাটলগ্রাউন্ডস (পাবজি) সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করেছে পাকিস্তান। বুধবার পাকিস্তানের টেলিকমিউনিকেশন কর্তৃপক্ষ এমনটি জানায়।

পাকিস্তার টেলিকমিউনিকেশন কর্তৃপক্ষ জানায়, গেমটির বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি অভিযোগ পাওয়ার পর এটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। গেমটি সমাজে ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলছে বলেও পাকিস্তান সরকারের পক্ষ দাবি করা হয়। এছাড়া পাবজির কারণে পাকিস্তানে বেশ কয়েকটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলেও জানা গেছে।

টুইটারে এক বার্তায় পাকিস্তার টেলিকমিউনিকেশন কর্তৃপক্ষ জানায় , পাবজির বিরুদ্ধে অসংখ্য় অভিযোগ জমা পড়েছে। এই গেম এক ধরনের আসক্তি তৈরি করে। আর এতে একবার আসক্ত হয়ে গেলে সময়ের অপচয় হয়।

পাকিস্তানে কয়েকজন পাবজি খেলোয়াড়ের আত্মহত্যার ঘটনা বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। অভিযোগ রয়েছে, এই জনপ্রিয় গেমে আসক্ত হয়েই তারা আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। এমনকি বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। লাহোর হাইকোর্টের নির্দেশে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য পাবজির বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

তবে পাবজি নিষিদ্ধ করার বিষয়টি ইমরান খান সরকারের সাময়িক সিদ্ধান্ত। এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে জনগণের মতামত চাওয়া হয়েছে। এই গেম নিষিদ্ধ করার নির্দেশিকা আগামীদিনেও বহাল থাকবে? না, তা ফের আগের মতোই চালু থাকবে, সেই বিষয়ে জনমত চাওয়া হয়েছে। আগামী ১০ জুলাইয়ের মধ্যে এই বিষয়ে সমাজের সব স্তরের মানুষের মতামত চাওয়া হয়েছে।

এদিকে পাকিস্তান সরকারের পাবজি নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না গেমটির ভক্তরা। তাদের দাবি, পাকিস্তান সরকার গেমটি বন্ধ করে অন্যায় করেছে। অবিলম্বে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবি করেছেন পাকিস্তানের পাবজি গেম ভক্তরা।

 

আরও পড়ুন