পুরুষ সেজে নারীদের যৌন হয়রানি করত এই নারী, পর্নো ভিডিও জব্দ

নবীগঞ্জ উপজেলার  নারী সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সিনিয়র সাংবাদিকদের যৌন হয়রানি  এবং  ফেসবুকে বিভিন্ন ভুয়া একাউন্ট খুলে প্রতারণার অভিযোগে ফরজুন আক্তার মনি নামের এক  নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মনিকে সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, অভিযুক্ত ফয়জুন আক্তার মনি পুরুষ সেজে নবীগঞ্জের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা বেগম ও সাবেক মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সেলিনা পারভিন এবং বিভিন্ন নারী ইউপি সদস্যসহ আরও অনেককে অশ্লীল ম্যাসেজ পাঠিয়ে যৌন হয়রানি করে আসছিল।

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শহরতলীর জে.কে উচ্চ বিদ্যালয় পয়েন্ট থেকে নবীগঞ্জ থানার পুলিশ ডিজিটাল নিরাপত্তা ও তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় মনিকে গ্রেফতার করে।

এসআই শামসুল ইসলাম জানান, মনির কাছে ২টি এনআইডি কার্ড, বিভিন্ন সংস্থার বেশ কিছু ভুয়া আইডি কার্ড, ৩টি মোবাইল ফোন, ১০টি সিম কার্ড, একটি কলম ক্যামেরা এবং মোবাইলে শতাধিক পর্নো ভিডিও পাওয়া যায়।

নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতারকৃত মনির বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা সমীরণ দাশ , বলেছেন তার রহস্য উদঘাটনের জন্য ৭ দিন রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন