প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি-জামায়াত

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, দেশের উন্নয়ন ও প্রধানমন্ত্রীসহ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে একটি অপশক্তি ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার চালাচ্ছে। আর এই অপশক্তির নেতৃত্বে আছে বিএনপি-জামায়াত। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে থেকে অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।
বুধবার বিকাল ৩টায় রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ডিগ্রি কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
লিটন বলেন, স্বাধীনতার পর রাজশাহী অঞ্চলে ব্যাপক উন্নয়ন করেছিলেন গোদাগাড়ী-তানোরের এমপি ও জাতীয় নেতা শহীদ এএইচএম কামরুজ্জামান। কিন্তু ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতাকে হত্যা পর উন্নয়ন বন্ধ করে স্বাধীনতা বিরোধীরা লুটপাট চালায়। ২০০৯ সালে শহীদ কামরুজ্জামানের বোনের ছেলে ওমর ফারুক চৌধুরী রাজশাহী-১ আসনের এমপি নির্বাচিত হয়ে উন্নয়ন করে গোদাগাড়ী-তানোরকে আওয়ামী লীগের দুর্গ হিসাবে গড়ে তুলেছে।
সম্মেলনে প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগের তূণমূল পর্যায়ের নেতৃত্ব ত্যাগী সৎ নেতাদের জায়গা দিতে হবে। উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী-১ আসনের এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী, সংরক্ষিত আসনের এমপি আদিবা আনজুম মিতা, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য বেগম আখতার জাহান, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অনিল কুমার সরকার, সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াদুদ দারা, মহানগর সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আলী কামাল, সাধারণ সম্পাদক ডাবল সরকার প্রমুখ।
রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে গোদাগাড়ী পৌরসভার মেয়র অয়েজউদ্দীন বিশ্বাস সভাপতি ও আবদুর রশিদকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। বুধবার বিকাল ৩টায় মাটিকাটা ডিগ্রি কলেজে সভাপতি পদে ৩ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ১১ জন প্রার্থী হলে সম্মেলনের প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন আনুষ্ঠানিকভাবে সভাপতি হিসাবে অয়েজউদ্দীন বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশিদের নাম ঘোষণা করেন। এর আগে অয়েজউদ্দীন বিশ্বাস গোদাগাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আবদুর রশিদ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।
আরও পড়ুন