প্রধানমন্ত্রী গাঙচিল নিয়ে যা বললেন

বিমানের সুনাম ফিরিয়ে এনে যাত্রীসেবার মান আধুনিকায়ন করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রপ্তানি-আমদানির স্বার্থে দ্রুত সময়ের মধ্যে আরো দুটো কার্গো বিমান সংগ্রহের লক্ষ্য চূড়ান্ত করা হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বহরে যোগ হওয়া তৃতীয় ড্রিমলাইনার বোয়িং ‘সেভেন এইট সেভেন-এইট’ এর বাণিজ্যিক যাত্রার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করে তিনি একথা বলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল থেকে গত ২৫ জুলাই দেশে আসে একটানা ১৬ ঘণ্টা উড়তে পারা ড্রিমলাইনার বোয়িং ‘সেভেন এইট সেভেন-এইট’ মডেলের বিমানটি। প্রধানমন্ত্রীর পছন্দে বিমানটির নাম দেয়া হয় ‘গাঙচিল’।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘১৯৯৬ সালের আগের ছবিগুলো দেখবেন, তখন বিমানবন্দর কেমন ছিল। তখন কোনো বোর্ডিং বা সুবিধা ছিল না। আমরা এসে করে দিয়েছিলাম। আমি অনুরোধ করবো আমার গাঙচিল যেন যথাযথভাবে ডানা মেলে উড়তে পারে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের প্রয়োজন অনুসারে আমরা আরো বিমান কিনবো। তবে এর মধ্যে চাচ্ছি আরও দু’টি কার্গো বিমান কিনবো। যাতে আমাদের আমদানি-রপ্তানি বাড়ে। তবে দামের বিষয়টি কোথায় কম পাওয়া যায় সেটি অবশ্যই দেখতে হবে।’

২০০৮ সালে মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন উড়োজাহাজ কেনার চুক্তি করে বিমান। এগুলোর মধ্যে সর্বশেষ ড্রিমলাইনারটি সেপ্টেম্বরে দেশে আসার কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন