বগুড়ার বস্তাভর্তি টাকা, যা বলল বাংলাদেশ ব্যাংক

অবশেষে বগুড়ায় পড়ে থাকা ৩৫ বস্তা কুচি কুচি করা টাকা নিয়ে মুখ খুলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। পৌরসভার উদ্যোগে ছিঁড়ে ফেলা বাতিল নোটের কোনো ব্যবহারিক বা বিনিময় মূল্য নেই। এ নিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্যও অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ অনুরোধ জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পরিবেশ দূষণ রোধে বাতিল নোট পুড়িয়ে ধ্বংসের কাজ সীমিত করে তা শ্রেডেড পদ্ধতি তথা ক্ষুদ্র-ক্ষদ্র টুকরা করে ফেলে দেয়ার পদ্ধতি অনুসরণ করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বাতিল নোটের টুকরা আবর্জনা হিসেবে স্থানীয় সিটি কর্পোরেশন বা পৌরসভার মাধ্যমে অপসারণের সিদ্ধান্ত হয়।

ওই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সিটি কর্পোরেশন বা পৌরসভার নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় এসব বাতিল নোটের টুকরাগুলো নির্ধারিত স্থানে ফেলার কথা। তবে গত ২৪ সেপ্টেম্বর বগুড়া পৌরসভার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বাংলাদেশ ব্যাংকের বগুড়া অফিসের বাতিল করা নোটের ছেঁড়া টুকরা নির্ধারিত স্থানে না ফেলে অন্যত্র ফেলেছেন।

পরে বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় বিভিন্নভাবে সংবাদ উপস্থাপন করা হলে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পাশাপাশি নানা প্রশ্ন উঠে।

 

আরও পড়ুন