বরিস জনসনের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চান নিজ দলের এমপিরাই

ব্রিটিনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছেন তার নিজের দলেরই বেশ কয়েক জন এমপি। গত বছর কোভিড বিধি ভেঙে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে একাধিক পার্টির খবর প্রকাশ্যে আসার পরিপ্রেক্ষিতেই কনজারভেটিভ পার্টির কয়েক জন এমপি ধরনের এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ব্রিটিশ আইন অনুসারে, ক্ষমতাসীন দলের অন্তত ১৫ শতাংশ এমপি যদি তাদের দলীয় নেতার (অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রী) বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনেন, তাহলে তা পার্লামেন্টে আলোচনার জন্য গ্রাহ্য হবে। কতজন এমপি আপাতত প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তা এখনও জানা যায়নি।

১০ নম্বর ডাউনিং‌ স্ট্রিটের বিভিন্ন পার্টি নিয়ে তদন্ত করছেন শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তা সু গ্রে। এ প্রসঙ্গে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী এক সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, তদন্ত শেষ হলে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট প্রকাশ করা হবে। তবে কবে সেই তদন্ত শেষ হবে, সে বিষয়ে কিছু জানাতে পারেননি বরিস জনসন। শুধু বলেছেন, ‘‘কী গতিতে, কী পদ্ধতিতে তদন্ত চলছে তা আমরা জানি না। আমরা তদন্তে কোনও রকম হস্তক্ষেপ করছি না। তবে শুধু এটুকু আপনাদের আশ্বাস দিতে পারি— তদন্ত শেষ হলে যখন সু গ্রে রিপোর্ট পেশ করবেন, আমি অসম্পাদিত রিপোর্টটি আপনাদের সামনে তুলে ধরব।”

 

লেবার নেতা কের স্টায়মারও বলেছেন, “গ্রে’র রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসার অপেক্ষায় রয়েছি আমরা সবাই।”

 

আরও পড়ুন