বলিউডের নায়িকা এখন বৌদ্ধ ভিক্ষুণী!

১৯৯৪ সালের মিস ইন্ডিয়ার থার্ড রানার আপ ‘বারখা মদন’। এর দুবছর পরেই ‘খিলাড়িয়োঁ কা খিলাড়ি’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে প্রত্যাবর্তন। ২০০৩ সালে রামগোপাল বর্মার ‘ভূত’-সিনেমায় অভিনয় করার পাশাপাশি বিভিন্ন টিভি সিরিজেও কাজ করেছেন তিনি।

১৯৭৪ সালে পাঞ্জাবি এক পরিবারে জন্মগ্রহন করা এই অভিনেত্রী ইংরেজিতে স্নাতক হওয়ার পরেও মডেলিংকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করেছিলেন।

যেখানে বলিউডের গ্ল্যামার জগতে টিকে থাকার তাগিদে নায়িকারা নিজেদের সর্বস্ব দিয়ে চেষ্টা করেন, সেখানে নিজের মনকে বসাতে পারছিলেন না বারখা। ক্লাস সিক্সে পড়ার সময় বাবা সেনা কর্মকতা হিসেবে কর্মরত থাকার সুবাদে সিকিম গিয়েছিলেন তিনি। আর সে সময় থেকেই সিকিমের বৌদ্ধমঠ তার মনে ধরে যায়। তাই বলিউডের মতো মঞ্চে থেকেও বার বার মঠে ফিরে যেতে চেয়েছিলেন।

অবশেষে ২০১২ সালে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেন তিনি। অভিনয় ছেড়ে তিনি পাড়ি জমান সন্ন্যাসে। মাথার চুল বিসর্জন দিয়ে কাঠমান্ডুর এক মঠে দীক্ষা নেওয়া শুরু করেন ।

বারখা বিশ্বাস করেন, ‘সন্ন্যাস গ্রহণ মানে সংসার ছেড়ে পালানো নয়। বরং, বৌদ্ধ দর্শনকে উপলব্ধি করে সংসারের মুক্তির জন্য কাজ করা।’ বৌদ্ধ ভিক্ষুণী হয়ে নিজের নাম বদলে রাখেন ‘গ্যালতেন সামতেন’।

আরও পড়ুন