বাংলাদেশে হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে গুজব

বাংলাদেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে গুজব ছড়িয়েছে। গুজবে বলা হচ্ছে, ‘সরকার হোয়াটসঅ্যাপের সবকিছুই রেকর্ড করছে। এই মাধ্যম দিয়ে কোনো সরকারবিরোধী বার্তা পাঠালে সেখানে তিনটি নীল টিক চিহ্ন দেখাবে অর্থাৎ সরকার সেটি দেখেছে। আর যদি লাল টিক চিহ্ন দেখায় তাহলে বুঝতে হবে, সরকার বিষয়টি নিয়ে কোনো পদক্ষেপে যাবে।’

এ ধরনের গুজবের বিষয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) একজন কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, এ ধরনের গুজবের কথা তারা জানেন না। এ বিষয়ে কেউ তাদের সঙ্গে যোগাযোগও করেনি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে ভারতে হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে গুজবের সৃষ্টি হয়। তখন ওই গুজবে বলা হয় সরকার হোয়াটসঅ্যাপসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কল/বার্তা রেকর্ড করছে’। তখন ইন্ডিয়া টুডে ফ্যাক্ট চেক করে জানায়, গুজবের বিষয়টি একদম ভুয়া। একই সঙ্গে ভারত সরকারের প্রেস ইনস্টিটিউটও ফ্যাক্ট চেক করে জানায়, সরকার এ ধরনের কোনো বার্তা দেয়নি এবং ছড়ানো বার্তাটি ভুয়া।

 

এছাড়া ২০২১ সালের শুরুতেই প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে বিপদে পড়েছিল হোয়াটসঅ্যাপ। ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হয়ে যেতে পারে এ ভয়ে অনেকেই ছেড়ে দিয়েছেন হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহার।

 

 

আরও পড়ুন