বিএনপির নেতার বাসায় কূটনীতিকদের সাথে যে কথা হল নেতাদের

নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত, যুক্তরাজ্যের হাই-কমিশনার এবং কানাডার উপ-হাইকমিশনারের কাছে ‘দেশ সংবিধান মতো চলছে না’ বলে নালিশ করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খানের গুলশানের বাসায় যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি দেশের কূটনীতিকের সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের এ বৈঠক হয়। বুধবার গুলশান-২ নম্বরে ৩৬ রোডের ৯ নম্বর বাড়িতে সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে এ বৈঠক শুরু হয়। আর শেষ হয় দুপুর ১২টার আগেই।

ওই বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী; জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এবং গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী।

বৈঠকের বিষয়ে বিএনপি বা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে গণমাধ্যমকে কিছু জানানো হয়নি। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি সূত্রে জানা গেছে, কূটনীতিকরা বর্তমান সংসদের কার্যক্রম নিয়ে বিরোধীদের সাথে আলোচনা করেছেন। এ সময় ঐক্যফ্রন্ট নেতারা দ্রুত নির্বাচনের দাবির কথা কূটনীতিকদের জানান।

ঐক্যফ্রন্ট নেতারা বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে এ সংসদ গঠিত হয়নি। কীভাবে তা কার্যকর হবে। পাশাপাশি প্রধান বিরোধী দল বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টিও তোলেন বৈঠকে।

এছাড়া রোহিঙ্গা ইস্যুতে ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের অবস্থান জানতে চেয়েছেন কূটনীতিকরা। প্রতি মাসে বিরোধীদের সাথে বৈঠকে বসবেন বলে জানান কূটনীতিকরা।

আরও পড়ুন