ব্রিটেনে ৪৮ ঘণ্টায় ১২ হাজারের বেশি চাকরি ছাঁটাইয়ের ঘোষণা

করোনার নেতিবাচক প্রভাবে গত ৪৮ ঘণ্টায় ব্রিটেনে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে ১২ হাজারের বেশি চাকরি ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে। স্যান্ডুইচ শপ, অতিসাধারণ এবং অভিজাত ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, এভিয়েশন সেক্টরসহ সর্বত্র নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে।

বুধবার ৭শ’ চাকরি ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে লন্ডনের অভিজাত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হ্যারডস। জন লুইস চাকরি ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিলেও কতজনকে ছাঁটাই করা হবে সে সংখ্যা প্রকাশ করেনি। ফ্যাশন ডিজাইনার টপশপের মালিক আর্কেডিয়া এর হেড অফিস থেকে অন্তত ৫শ’ এবং ভার্জিন মানিও এর দুটি শাখা থেকে ৩শ’ স্টাফ ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার পুরুষদের ফ্যাশন ডিজাইনার প্রতিশষ্ঠান টিএম ল্যুউইন অন্তত ৬শ’ স্টাফ ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দেয়। একই দিন অন্তত ৭২৭ জন পাইলট ছাঁটাই এবং একই সঙ্গে স্ট্যানস্টেড, সাইথএন্ড এবং নিউক্যাসল বিমান বন্দরে এর কার্যক্রম বন্ধের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিল ইজি জেট।

বুধবার প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয় যে, প্রায় ১ হাজার ৩শ’ ক্রু এবং ৭২৭ জন পাইলট ছাঁটাই করা হবে। ইজি জেটের প্রায় ৮০ শতাংশ পাইলট বর্তমানে সরকারের কাছ থেকে ফারলো পাচ্ছেন। এই কোম্পানিকে সরকার করোনা লকডাউনের পর প্রায় ৬শ’ মিলিয়ন পাউন্ড ঋণও দিয়েছে।

এদিকে উড়োজাহাজ তৈরীর প্রতিষ্ঠান এয়ারবাস ওয়েলস এবং ব্রিস্টল থেকে অন্তত ১ হাজার ৭শ’ চাকরি ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানটি ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকেও স্টাফ ছাঁটাই করবে বলে জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনা লকডাউন শুরুর পর থেকে জব রিটেনশন স্কিমের অধীনে অন্তত ৯ মিলিয়ন কর্মকর্তা কর্মচারীকে ফারলো দিয়ে যাচ্ছে সরকার। এজন্যে এরইমধ্যে সরকারের প্রায় ২৫ বিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় হয়েছে। তবে আগস্ট থেকে ফারলোর নিয়মে আরও পরিবর্তন হবে।

 

আরও পড়ুন