মহরাষ্ট্রে গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে বিজেপি-রাহুল গান্ধী

ভারতীয় পার্লামেন্টের বিরোধী দল কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেছন, মহরাষ্ট্রে গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে বিজেপি। মহারাষ্ট্রের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘আমি আজ এখানে প্রশ্ন করতে এসেছিলাম; কিন্তু আমার প্রশ্ন করার কোনো ইচ্ছাই নেই। কারণ মহারাষ্ট্রে গণতন্ত্রের হত্যা হয়েছে। তাই প্রশ্ন করার কোনো অর্থই হয় না।’

মহারাষ্ট্রের সরকার গঠন নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে যে রাজনৈতিক সঙ্কট চলছে সে বিষয়েই রাহুলের এই ক্ষোভ। আর পার্লামেন্ট চত্বরে কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ প্রতিবাদে সরব হন দলের এমপিরা। মহারাষ্ট্রে রাতারাতি রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের বিরুদ্ধে পার্লামেন্টের ভেতরে-বাইরে এ বিক্ষোভের জেরে ব্যাহত হয় অধিবেশনের স্বাভাবিক কাজ।

শনিবার সবার অগোচরে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর পদে দেবেন্দ্র ফাড়নবিশ এবং উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ারের ভাইপো অজিত পাওয়ার। এ শপথ গ্রহণের প্রক্রিয়াকে ‘অবৈধ’ বলে দাবি করে সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস।

সোমবার অধিবেশন শুরু হতেই মহারাষ্ট্রের ঢেউ আছড়ে পড়ল সংসদে। ১১টায় সংসদের দুই কক্ষেরই অধিবেশন শুরু হয়। সেখানেই রাহুল গন্ধী নিজের ক্ষোভ ঝাড়েন।

আরও পড়ুন