মাশরাফি ঢাকার ‘কাপ্তান’

মাশরাফি বিন মুর্তজা! গত ১৭ নভেম্বর বিপিএল প্লেয়ার ড্রাফটের নমুনা দেখে শুরুতে বোধ হয় তেমন কিছুই ভাবতে শুরু করেছিলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। না হলে একের পর এক খেলোয়াড় দলে ভেড়াচ্ছে দলগুলো। একজন-মাশরাফির কোনো খবর নেই। এভাবে কয়েকটা রাউন্ড পেরিয়েও যায়।

ক্রিকেটপাড়ায় গুঞ্জন উঠে, তবে কী সময় ফুরিয়ে গেল মাশরাফির? আর তাতেই সকলের মধ্যে এমন উৎকণ্ঠাও দেখা দিয়েছিল যে, ৫০ লাখ টাকা ভিত্তিমূল্যে এ প্লাস ক্যাটাগরিতে থাকা মাশরাফিকে কেউ কি দলে নেবে না?

যদিও শেষ পর্যন্ত সকলের উৎকণ্ঠার অবসান ঘটিয়ে অষ্টম ডাকে এসে নড়াইল এক্সপ্রেসকে দলে ভেড়ায় ঢাকা প্লাটুন। মাশরাফির নাম উচ্চারিত হতেই রেডিসন ব্লু হোটেলের প্লেয়ার্স ড্রাফট চলাকালীন সময়ে সেখানে কিছুক্ষণের জন্য দেখা যায় উল্লাস। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী ‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরির একাধিক ক্রিকেটারকে দলে নেয়ার সুযোগ ড্রাফটে ছিল না। কিন্তু তামিম ইকবালের পর মাশরাফিকে ঢাকা প্লাটুন দলভুক্ত করায় বিতর্ক ছড়িয়েছে।

প্লেয়ার্স ড্রাফটে সবচেয়ে বেশি অর্থও ব্যয় করেছে ঢাকা প্লাটুন। দেশি-বিদেশি খেলোয়াড় কিনতে দলটি খরচ করেছে ৪ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। দেশি ক্রিকেটার কিনতে ঢাকা প্লাটুন ২ কোটি ২২ লাখ এবং বিদেশি ক্রিকেটার কিনতে ২ কোটি ২৬ লাখ টাকা খরচ করেছে।

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের সপ্তম আসরে সবচেয়ে ব্যয়বহুল দলটি আরও একটি দিক দিয়ে টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানোর আগে বাকি দলগুলোর চেয়ে আগির থাকলো। আর সেটি হলো অধিনায়ক নির্বাচন। দলটির কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ও টিম ডিরেক্টর গাজী গোলাম মোর্তজাসহ সকলে মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, ঢাকা প্লাটুনের হয়ে অধিনায়কত্ব করবেন মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) ইতিহাসের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক নড়াইল এক্সপ্রেসের অধীনে খেলবেন তামিম ইকবাল, এনামুল হক বিজয়, হাছান মাহমুদ, মেহেদী হাসান, আরিফুল হক, মুমিনুল হক, শুভাগত হোম, মাশরাফি মুর্তজা, রকিবুল হাসান ও জাকির আলী অনিক। আর বিদেশিদের মধ্যে রয়েছেন থিসারা পেরেরা, লরি ইভান্স, ওয়াহাব রিয়াজ, আসিফ আলী, লুইস রিস ও শহীদ আফ্রিদি।

আরও পড়ুন