মৌলভীবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ১৪ বছর পর

 মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন দীর্ঘ ১৪ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে । আগামী ২ ডিসেম্বরকে এনিয়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে। কাউন্সিলের মাধ্যমে দলের নেতাকর্মীরা নতুন নেতৃত্বের প্রত্যাশা করছেন। 

পদ প্রত্যাশীদের দৌঁড়ঝাপ শুরু হয়েছে তৃণমূল থেকে জেলা ও কেন্দ্র পর্যায়ে। কারা হচ্ছেন এবারে নবকমিটির সভাপতি ও সম্পাদক নিয়ে বিরাজ করছে নেতার কর্মীর মাঝে আলোচনার ঝড়। জেলা সদরে মতো গুরুত্বপুর্ণ উপজেলায় সবাই চান একটু ব্যতিক্রমী নেতা ও নেতৃত্বের । এবারের কমিটিতে নবীন ও প্রবীণের সমন্বয়ে নতুন কমিটি গঠিত হবে এমন আশা করছেন দলের বয়োজ্যেষ্ঠ নেতারাও। তাই নতুন মুখ আসতে পারে এই কমিটিতে। অন্যদিকে সম্মেলনকে ঘিরে মৌলভীবাজারে ব্যস্ত সময় পার করছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা। 

দীর্ঘ ১৪ বছর পর উপজেলা আওয়ামী লীগের এই সম্মেলন হওয়ায় নেতাকর্মীদের প্রাণচাঞ্চল্য অনেকটা বেড়ে গেছে। ইতোমধ্যেই নিজের পছন্দের প্রার্থীদের পক্ষে উপজেলা জুড়ে বিলবোর্ড ও ফেস্টনে ঘিরে গেছে। শহরে ও তৃণমূলের হাটবাজারে সম্মেলনের আসা সম্ভাব্য অতিথিদের পোষ্টার ব্যাপকভাবে আটকিয়ে রাখা হচ্ছে। এবার ক্লিন ইমেজের নেতৃত্ব প্রত্যাশা করছেন তাঁরা। 

সম্মেলনকে ঘিরে এরই মধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। জানা যায়, একটি পৌরসভা ও ১২টি ইউনিয়নের কমপক্ষে চার শতাধিক জন তৃণমূল নেতাকর্মী ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন। সম্মেলনে সভাপতি পদে দুইজন ও সাধারণ সম্পাদক পদে দুইজন প্রতিদ্বন্ধিতা করবেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। মূলত দুইটি বলয়ে সম্মেলনে জানান দিচ্ছেন প্রার্থীরা। আকবর-সুয়েব পরিষদ ও আনকার-সুফিয়ান পরিষদ। এই দুই প্যানেলের প্রার্থীরা মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন। তবে বিশ্বস্ত সূত্রে জানায়, দলের গতিশীলতা বাড়াতে যুবক ও তরুণদের সমন্বয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটিতে পূর্ণাঙ্গ রূপ দেয়া হবে।
            
আরও পড়ুন