রাবির ইমেরিটাস প্রফেসরের করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু

করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ইমেরিটাস প্রফেসরের মৃত্যু হয়েছে। ড. ফখরুল ইসলাম (৮২) রাবির ফলিত রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ছিলেন।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে তার মৃত্যু হয়। ড. ফখরুল ইসলামের বাড়ি নগরীর কাজিহাটা এলাকায়।

রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, জ্বর ও শ্বাসকষ্ট থাকায় প্রফেসর ড. ফখরুল ইসলামকে বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালে ভর্তি করা হন। দুপুরেই তিনি মারা যান। তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন কি না তা নমুনা পরীক্ষার পর বলা যাবে। এ জন্য মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আপাতত স্বাস্থ্যবিধি মেনে মরদেহ দাফনের জন্য কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

ইমেরিটাস প্রফেসর ড. ফখরুল ইসলামের জন্ম ১৯৩৮ সালে, কলকাতায়। তার বাবা মীর আহমদ হোসেন রাজশাহী কলেজের উপাধ্যক্ষ ছিলেন। পড়াশোনা শেষ করে ড. ফখরুল ইসলামও শিক্ষকতা শুরু করেছিলেন। গবেষণা কার্যক্রম চালাতে গিয়ে তিনি নিজেকে একজন বিজ্ঞানী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। আর্সেনিক নিয়ে গবেষণায় তার বিশেষ অবদান রয়েছে।

ড. ফখরুল ইসলাম ২০০৩ সালের দিকে ইমেরিটাস প্রফেসর হন। তবে ২০০৫ সাল থেকে আর বিশ্ববিদ্যালয়ে যান না। তার দুই ছেলে। একজন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক। অন্যজন একটি বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা।

ছেলে অধ্যাপক ড. মোনতাজুল ইসলাম জানান, গত ২৯ জুন থেকে ড. ফখরুল ইসলাম জ্বরে ভুগছিলেন। হঠাৎ বৃহস্পতিবার সকালে তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এরপরই তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু দুপুরেই তিনি মারা যান।

ড. মোনতাজুল ইসলাম বলেন, তার বাবা বাসার বাইরে যেতেন না। তাই করোনার কারণে জ্বর হতে পারে বলে তারা মনে করেননি।

 

আরও পড়ুন