রাবি ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে হলের গেস্ট রুমে বসা নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটছে। শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদারবখশ হল সংলগ্ন রাস্তায় রাবি ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির অনুসারী ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য সাকিবুল হাসান বাকীর অনুসারীদের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে।

এতে আহত হয়েছে অন্তত ৫ জন। আহতরা হলেন ছাত্রলীগ কর্মী একরাম হোসেন রিয়ন, মারুফ পারভেজ, জসিম, লিমন, সোহেল। প্রত্যক্ষদর্শী ও ভূক্তভোগীরা জানায়, দুপুরে ছাত্রলীগ নেতা সাকিবুল হাসান বাকির অনুসারী ও স্পোর্টস সায়েন্স বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী লিমন হোসেন তার দুই বান্ধবীকে নিয়ে হলের গেস্ট রুমে আসেন।

এসময় সেখানে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুর অনুসারী ও সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী কামরুল ইসলাম তার এক বন্ধুকে নিয়ে বসে ছিলেন। এসময় লিমন তাকে গেস্ট রুমে জায়গা করে দিতে বললে কামরুল ক্ষিপ্ত হয়ে রূঢ়ভাবে আচরণ করেন।

পরে লিমন তার কয়েকজন বন্ধুকে ডেকে কামরুলের কক্ষে গিয়ে তালাবদ্ধ দেখতে পেয়ে জানালা ভাঙচুর করে। এরপরে হল সংলগ্ন রাস্তায় দুই পক্ষ মুখোমুখি হলে সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে। এতে একরাম হোসেন রিয়ন, মারুফ পারভেজ, জসিম, লিমন, সোহেল।

বিষয়টি নিয়ে হল প্রাধ্যক্ষ, প্রক্টোরিয়াল বডি এবং রাবি ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা মাদারবখশ হলে আলোচনায় বসেছেন।

রাবি ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া অভিযোগ করে বলেন, বহিরাগতদের নিয়ে এসে আমাদের ছেলেদের মারধর করেছে সাকিবুল হাসান বাকি। ওরা ছাত্রলীগের মিছিল মিটিংয়ে আসেনা, শুধু ঝামেলা করে। তিনি বলেন, ঘটনার পর আমরা গিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি শান্ত করেছি। প্রাধ্যক্ষ স্যার ও প্রক্টরিয়াল বডি বিষয়টি দেখছেন।

আরও পড়ুন