রাশেদ খান মেননও ক্যাসিনোর চেয়ারম্যান!

রাজধানীর ফকিরাপুলে অবস্থিত ‘ক্যাসিনো’ ক্লাব ইয়ংমেন্সের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান স্থানীয় সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন। তবে তার দাবি, তিনি জানতেন না সেখানে জুয়ার আসর বসে। তিনি ফুটবল ও ক্রিকেট খেলার ক্লাব হিসেবেই সেটাকে জানতেন এবং সেই কারণেই চেয়ারম্যান হয়েছেন। তবে একবারের বেশি এই ক্লাবে যাননি বলেও তার দাবি।
‘ক্যাসিনো’ চালানোর অভিযোগে এই ক্লাবের সভাপতি যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে তার গুলশানের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রাশেদ খান মেনন জানান, ক্লাবটির সাধারণ সম্পাদক মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী সাব্বির তাকে ওই ক্লাবে নিয়ে গিয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিলেন। যদিও সেখানে চেয়ারম্যানের একটি কক্ষ রয়েছে।
ওই ক্লাবে এতসব কিছু হয় সেটা তার জানা ছিল না বলে প্রথমে উল্লেখ করেন মেনন খান। তিনি বলেন, ওটা তো ফুটবল ক্লাব, তারা ক্রিকেট খেলে। তাদের ফুটবল লিগ আছে। আর সেই ব্যাপারেই আমাকে নেওয়া হয়েছিল। আমি সেখানে একবারই গিয়েছি। এরপর সেখানে আমি যাইনি। আর জানিও না সেখানে কী হয়।

জানা যায়, ২০১৬ সালের ১৯ জুন ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাবের ৩১ সদস্যের নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়। এতে খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে সভাপতি ও হাজী মো. সাব্বির হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। ফকিরেরপুলের এই ক্লাবটির প্যাভিলিয়নে কার্যনির্বাহী কমিটির এক সভায় ওই নতুন কমিটি অনুমোদনের পাশাপাশি তৎকালীন বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপিকে সর্বসম্মতিক্রমে ক্লাবের গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান নির্বাচিত করা হয়।

রাতভর চলবে ক্যাসিনো বন্ধে র‌্যাবের সাড়াশি অভিযান

রাজধানীর ফকিরাপুলে যুবলীগ দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ ভুইয়ার ইয়ংমেন্স ক্লাবে (ক্যাসিনো) সিলগালা করার পর র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ইয়ংমেন্স ক্লাবের পাশে ঢাকা ওয়ান্ডার্স ক্লাবেও অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এটি ঢাকা দক্ষিণ সিটির ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোমিনুল হক সাঈদ পরিচালনা করেন। এখানে জুয়ার বোর্ড রয়েছে ১২টি। এখান থেকে মদ, বিয়ার ও বিপুল টাকা উদ্ধার করা হয়।

এই অভিযানের পরপরই বনানীর আহমেদ টাওয়ারে একটি ক্যাসিনোতে অভিযান চালায় র‌্যাব এবং ক্যাসিনো সিলগালা করা হয়। ক্যাসিনোটির নাম গোল্ডেন ঢাকা বাংলাদেশ। র‌্যাবের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এই ক্যাসিনোটির মালিক আবু কাউসার মোল্লা। উল্লেখ্য, আবু কাউসার মোল্লা স্বেচ্ছা সেবক লীগের সভাপতি।
র‌্যাবের অভিযান চলছে মতিঝিলের ক্লাব পাড়ায়। সেখানে ওয়ান্ডার্স ক্লাব, মুক্তিযোদ্ধা ক্লাবসহ বিভিন্ন ক্লাবে ক্লাবে অভিযান চলছে। সূত্র বলছে, এই অবৈধ ক্যাসিনো বন্ধের জন্য রাতভর অভিযান চালানো হবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এই সমস্ত অবৈধ ক্যাসিনো বন্ধ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন