রুমিনের পর নতুন করে প্লট চাচ্ছেন পাপিয়া ও অন্যান্যরা

রুমিন ফারহানার পর এবার বিএনপি নেত্রী ও সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়াও গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রীর কাছে নতুন করে প্ল’ট চেয়ে আবেদন করেছেন। তিনি নবম জাতীয় সংসদে বিএনপি থেকে সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। পাপিয়া বর্তমান সংসদে বিএনপির নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও দলের যুগ্ম মহাসচিব হারুনুর রশীদের স্ত্রী।

বিএনপির শাসনামলে সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়া প্লট পান এবং একই সময় তার স্বামী মো. হারুনুর রশীদও প্লট নেন।
পরে এক-এগারোর সরকার তাদের দু’জনেরই প্লট বা’তিল করে দেয়। বিষয়টি নিয়ে আদালতের দ্বা’রস্থ হন পাপিয়া। পরে রায় তার অনুকূলে এলেও তাকে প্লট বুঝিয়ে দেয়া হয়নি।
জানা গেছে, অন্যদিকে তার স্বামী মো. হারুনুর রশীদ বর্তমান একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য। হারুনুর রশীদ নতুন করে প্লটের জন্য কোনো আবেদন করেননি।

সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়া প্লটের জন্য গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছে কিনা জানতে চাইলে তার স্বামী মো. হারুনুর রশীদ বলেন, সরকারি গেজেটে অনুসারে একজন এমপি পরিবার একের অধিক পাবে না। একজন এমপি তার স্ত্রী আলাদা আলাদা প্লট পায় না। এক-এগারোর সরকার পাপিয়ার নামের প্লট বা’তিল করেছিলো। এর জন্য হাইকোর্টে, সুপ্রিমকোর্টে রিট করা হয়েছিলো। রি’টের শুনানিতে তার পক্ষে রায় হলেও সে কোনো প্লট পায়নি। বলা হয়েছিলো আমার নামে প্লট আছে যার কারণে তার প্লট বা’তিল করা হয়েছে। আমার নামে কোনো প্লটই নাই।

তবে তার স্ত্রীর প্লটের জন্য গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে আবেদনের বিষয়ে তিনি কোনো সুষ্পষ্ট বক্তব্য দেননি।
এ বিষয়ে সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়া কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এদিকে রুমিন ফারহানার পাশাপাশি বিএনপির আরও কয়েকজন প্লট চেয়ে আবেদন করেছেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে। একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের এমপি হিসেবে শপথ নেয়ায় মাত্র দু’মাসের মধ্যে গত ৩ আগস্ট গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম বরাবর ১০ কাঠার প্লট চেয়ে আবেদন করেন বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

রুমিন ফারহানার সমালোচনা করার অধিকার সবার নেই: আসিফ নজরুল

ফেসবুক থেকে: রুমিন দশকাঠা জমি চেয়ে কাজটা ভালো করেননি। তবে তার সমালোচনা করার আগে অন্তত একশত বার ভোট চো’র, ব্যাংক চো’র, প্রকল্প চো’র, শেয়ার চো’র আর ঘু’ষখোরদের নাম ধরে ধরে সমা’লোচনা করতে হবে আপনাকে।

পারবেন? না পারলে রুমিনের সমা’লোচনা করার কোন অধি’কার আপনার নেই। কারণ রুমিন তাদের তুলনায় কোন অপ’রাধ করেননি। তিনি শুধু ভু’ল করেছেন, নৈতি’কতার দিক দিয়ে অশু’দ্ধ কাজ করেছেন।

রুমিনকে সমালোচনা করার অধি’কার আছে কেবল দুধরনের মানুষের। ১) যারা নি’শঙ্ক চিত্তে সবার সব ধরনের অপ’কর্মের সমালো’চনা করেন। ২) বিএনপির সেসব ত্যাগী কর্মীদের যারা বিশ্বাস করেছিলেন যে রুমিন সংসদে গেছেন, শুধুমাত্র সরকারের অপ’কর্ম তুলে ধরতে আর খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি তুলতে।

আরও পড়ুন