রোহিঙ্গা তরুণী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার

কিছুদিন আগে জার্মান ভিত্তিক বার্তা সংস্থা ডয়চে ভেলেকে দেওয়া একটি ভিডিও সাক্ষাৎকার ভাইরাল হয়। ভিডিওতে দেখা যায় কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (সিবিআইউ) থেকে রহিমা আক্তার খুশি নামে এক শিক্ষার্থী মিয়ানমারের নাগরিক। ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর উক্ত শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রম সাময়িক স্থগিত করা হয়েছিল।

আলোচিত রোহিঙ্গা তরুণী রাহিমা আক্তার ওরফে রাহি খুশিকে এবার কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (সিবিআইইউ) থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. আবুল কাশেম।

ভিসি জানান, খুশির পরিচয় প্রকাশ হওয়ার পর তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। তার সনদসহ অন্যান্য সব তথ্যাদি যাচাই করতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে কমিটি রিপোর্ট দেবে।

সিবিআইইউ ভিসি বলেন, ‘খুশি যে বাংলাদেশি নয়; সেটি সরকার প্রমাণ করে সিদ্ধান্ত দেবে। আমরা সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব’।

রহিমা আক্তার খুশি কক্সবাজার বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমি থেকে এসএসসি ও কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে। এসব সনদ এবং বাংলাদেশি জন্মসনদ দিয়ে ভর্তি হয়ে বর্তমানে তিনি কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী। কক্সবাজারের ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে এলএলবি অনার্স পড়ছেন।

আরও পড়ুন