লোকালয় ছেড়ে যেতে চাইছে না সেই হাতি

ছয় দিনের ব্যবধানে দুই বার কাঁদায় আটকা পড়া সেই বন্য হাতি লোকালয় ছেড়ে যেতে চাইছে না! এরই মধ্যে খেতে না পারায় দুর্বল হয়ে পড়েছে হাতিটি। বর্তমানে হাতিটি চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার জামিলাবাদ নূরের ঘোনা এলাকায় বন বিভাগের তত্ত্বাবধায়নে আছে। হাতিটিকে চিকিৎসা দিতে ডুলাহাজরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

রাঙ্গুনীয়া নারিঞ্চা বন বিটের অফিসার মিন্টু কুমার বলেন, ‘সোমবার পর্যন্ত হাতিটি মুক্ত অবস্থায় নূরের ঘোনা এলাকায় ছিল। মঙ্গলবার দুর্বল হয়ে পড়ে যাওয়ায় হাতিটিকে সেখানে বেঁধে রাখা হয়েছে। এলিফ্যান্ট রেসপন্স টিমের (ইআরটি) ১০ জন সদস্য পালাক্রমে এখন হাতিটির খেয়াল রাখছে। সার্বিক পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে হাতিটি লোকালয় থেকে ফিরতে চাইছে না।’

বন বিভাগের কর্মকর্তারা জানান- এরআগে ২৯ এপ্রিল এবং ৪ মে কোদালা চা বাগানের পূর্বপাশে জামিলাবাদের একটি বিলে আবার কাঁদায় আটকে যায় হাতিটি। তখন আটকে পড়ার পর হাতিটিকে উদ্ধার করা হয়। সর্বশেষ ৫ মে উদ্ধারের পর পিঠে ক্ষত দেখে হাতিটিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। ক্ষত সেরে গেলে ৭ মে অবমুক্ত করা হয়। এরপর হাতিটি পার্শ্ববর্তী পাহাড়ে গিয়েছিল। পরে আবার ১০-১২টি হাতির একটি দল লোকালয়ে আসে। অন্য হাতিগুলো ফিরে গেলেও এটি লোকালয়ে থেকে যায়। তখন কাঁদায় আটকে পড়ে। কাঁদা থেকে অবমুক্ত করার পরও হাতিতে লোকালয়ে থেকে যায়।

আরও পড়ুন