শাহীনের ফিরে আসার আকুতি মামার

মিষ্টি এবং চঞ্চল প্রকৃতির ছেলে ১১ বছরের শাহীন। সবার সাথে বন্ধুসুলভ আচরণ তার। তাই এলাকায় সকলের পছন্দের পাত্র ছিল শাহীন। মগবাজারের মধুবাগ মাঠে প্রতিদিন বিকেলে বন্ধুদের সাথে ক্রিকেট খেলতে যেত শাহীন। খেলা শেষ হলে বাসায় ফিরে আসত।

প্রতিদিনের মতই রবিবার (২৮ জুলাই) বিকেলেও মাঠে খেলতে গিয়েছিল শাহীন। কিন্তু সেদিন খেলা শেষে বন্ধুরা সবাই বাসায় ফিরলেও ফেরেনি শাহীন। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও হদিস মেলেনি শাহীনের।

এদিকে সকলের আদরের শাহীন হঠাৎ নিখোঁজ হওয়ায় পাগলপ্রায় হয়ে গেছেন আত্মীয়-স্বজনরা।

এ ব্যাপারে শাহীনের মামা রেজওয়ান মাহমুদ রিজন  বলেন, এই পৃথিবীতে আজ থেকে মানুষ নামের জীবটাকে আর ভরসা বা বিশ্বাস করতে পারছি না। আমার কলিজার টুকরা ভাগিনা শাহিন গত ২৭ ঘন্টা যাবৎ নিখোঁজ। বিকেলে ক্রিকেট খেলতে গিয়ে আর বাসায় ফেরেনি।

রেজওয়ান মাহমুদ রিজন আরও বলেন, ওর বন্ধুদের সাথে কথা বলে জানলাম সন্ধ্যা পর্যন্ত একসাথে খেলে যে যার বাসায় চলে যায়। সবাই বাসায় ফেরে, শুধু ও ফেরেনি। মাইকিং করেছি সারাদিন। এলাকায় এলাকায় দোকানে দোকানে জানিয়েছি। কমিউনিটি হাসপাতালে খোঁজ নিয়েছি। ঢাকা মেডিকেলেও খোঁজ নিয়েছি, কোন খবর পাইনি। এলাকার লোক সর্বশেষ ওকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত দেখেছে।

শাহীনের মামা জানান, আমার ভাগিনা শাহিন বুদ্ধিমান ও বিচক্ষণ। ও পুরো মধুবাগ এলাকা আমার চেয়ে ভাল চেনে। এলাকার মানুষও ওকে চেনে। ওকে বাইরের যে কেউ ডেকে নিয়ে যেতে পারবে না। ওর সাথে কোন রাগারাগিও হয়নি যে রেগে চলে যাবে। আর সকল আত্মীয়র বাসায় জানানো হয়েছে, কেউই কিছু জানে না। কাল সারারাত ঘুমাইনি। আজও সারাদিন খুঁজে খুঁজে ব্যর্থ হয়ে বসে আছি। ও কারো ক্ষতি করে না, সবার সাথে বন্ধু সুলভ আচরণ করে। ও ফিরে আসুক। আমি চাই ও ফিরে আসুক, আমাকে জ্বালাক, আমার বুকে ফিরে আসুক ও।

এ বিষয়ে হাতিরঝিল থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য হাতিরঝিল থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন তুলেননি।

বিবরণ:-

নাম: শাহীন
বয়স: ১১ বছর
গায়ের রং: ফর্সা বর্ণ

গত ২৮ শে জুলাই ২০১৯ তারিখ থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। মগবাজারের মধুবাগ মাঠে বিকেলে খেলতে গিয়েছিল। তারপর আর বাসায় ফেরেনি। কোন সহৃদয়বান ব্যক্তি তার সন্ধান পেলে অনুগ্রহপূর্বক যোগাযোগ করুন।

মোবাইল: ০১৬৭৫৫৫১৫৮৬, ০১৭১৫৪০০৮০১

আরও পড়ুন