সাকিব ফেরায় খুশি সবাই

এক সময় তারা ছিলেন ভালো বন্ধু। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে বন্ধুত্বে যে কিছুটা হলেও ফাটল ধরেছে তা এখন পরিষ্কার। বলছিলাম, সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালের কথা। তার পরও নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে সাকিব ক্রিকেটে ফেরায় খুশিই হয়েছেন তামিম।

জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় এক বছর সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ছিলেন সাকিব। কিছু দিন আগেই তিনি মুক্ত হয়েছেন। আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ দিয়ে আবারও প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরবেন এই অলরাউন্ডার। প্লেয়ার্স ড্রাফটে সাকিবকে দলে নিয়েছে জেমকন খুলনা।

দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনার প্রতিপক্ষ তামিমের ফরচুন বরিশাল। আজ ২২ গজের ময়দানে সাকিব-তামিম মুখোমুখি হবেন। সাকিব ফেরায় খুশি হলেও বরিশালের অধিনায়ক চান, তাদের বিপক্ষে যেন ভালো পারফর্ম করতে না পারেন সাকিব। গতকাল অনুশীলনের এক ফাঁকে সাকিবের ফেরা প্রসঙ্গে তামিম ইকবাল বলেছেন, ‘আমি নিশ্চিত ওর (সাকিব) জন্য এটা অনেক বড় দিন। কারণ ও প্রায় এক বছর পর মাঠে ফিরছে। ওর জন্য বড় দিন, বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্যও একটা গুরুত্বপূর্ণ দিন।’ তামিমের বিশ্বাস, প্রথম ম্যাচেই সাকিব নিজেকে মেলে ধরতে পারবে।

তিনি বলেন, ‘মনে হচ্ছে যে খেলার জন্য ও খুব উদগ্রীব। ভালো খেলতে একদম মুখিয়ে আছে।’ তবে তার দলের বিপক্ষে সাকিব যেন ভালো পারফর্ম করতে না পারেন এমনটাই আশা বরিশাল অধিনায়কের। তামিম বলেন, ‘যেহেতু আমার জন্য এটা একটা খেলা, আমি চেষ্টা করব যেন যত কম প্রভাব ও ফেলতে পারে। তবে দিন শেষে আমি খুশি যে ও ফিরছে। আমি নিশ্চিত, ও কালকে (আজ মঙ্গলবার) থেকে আরও ভালোভাবে এগিয়ে যাবে।’ তামিম নিজের দলকে নিয়ে আশাবাদী। খুলনাকে সমীহ করছেন তিনি। তবে নিজ দলের খেলোয়াড়দের ওপর বিশ্বাস রয়েছে তার। বরিশালের অধিনায়ক বলেন, ‘নিশ্চিতভাবেই কাগজে-কলমে ওরা খুবই শক্তিশালী দল।

তবে আপনার দলে যে-ই থাকুক না কেন, সবচেয়ে বড় জিনিস হলো খেলোয়াড়দের ওপর বিশ্বাস করা, যেটা আমার আছে। আপনি হয়তো আমাদের দলে বড় নাম খুঁজে পাবেন না।

কিন্তু তারা সবাই ম্যাচ জেতাতে সক্ষম।’ তিনি আরও বলেছেন, ‘অনেক সময় অনেক শক্তিশালী দল থাকে কিন্তু দিনশেষে তারা ট্রফিও জিততে পারে না। আমি আশা করছি আমরা এ টুর্নামেন্টে ভালো খেলব।’

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে দলে পেয়ে খুশি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। খুলনার অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা সবাই জানি সাকিবের গুরুত্ব কতটুকু। সেটা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে হোক বা ঘরোয়াতেই হোক। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আমরা সবাই খুশি ওর জন্য যে ও ফিরে এসেছে এবং ও আমাদের দলেই খেলছে। তাকে দলে পাওয়া অনেক ভালো একটা ব্যাপার।’ অন্যদিকে বেক্সিমকো ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম মনে করেন, সাকিবের ফেরাটা পুরো টুর্নামেন্টের জন্যই একটা বড় পাওয়া। তিনি বলেছেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, পুরো টুর্নামেন্টের জন্যই এটা বড় একটা পাওয়া। তার সঙ্গে এবং বিপক্ষে তরুণ যারা খেলবে, তারা অনেক কিছু শিখতে পারবে। এটা ভবিষ্যতেও খুব কাজে দেবে।

 

আরও পড়ুন