সাবান-তোয়ালে চুরি করে চরম অপমানিত ভারতীয় পরিবার

একজন হাত জোর করে বললেন, ভুল হয়ে গিয়েছে। ছেড়ে দিন না! আমি এসব জিনিসের মূল্য চুকিয়ে দেব। আরেকজন হাত দেখিয়ে তাকে থামালেন।

তারপর গম্ভীর গলায় বললেন, আমি জানি আপনার অনেক টাকা। কিন্তু এখানে টাকাটা আসল নয়। আপনারা যেটা করেছেন তার জন্য শাস্তি প্রাপ্য। বাচ্চাদের নিয়ে ঘুরতে এসে এমন জঘন্য কাজ আপনারা করলেন কী করে!

এভাবে কথাকাটাকাটি, তর্কাতর্কি চলতে থাকে। একইসঙ্গে চলতে থাকে তল্লাশি। এরপরই একজন ভদ্রলোক বলে ওঠেন, আপনার হোটেলের ৫০ লাখ টাকার জিনিস আমি এখনই কিনে নিতে পারি। ছেড়ে দিন আমাদের। ভুল হয়ে মানছি তো! হোটেলকর্মীরা কোনও কথা শুনলেন না।

একে একে ব্যাগ থেকে বেরিয়ে আসে তোয়ালে, হ্যান্ড ওয়াশ, ঘর সাজাবার কিছু জিনিস, হেয়ার ড্রায়ার, সাবানসহ আরও অনেক কিছু। এতক্ষণ পর্যন্ত যিনি ক্ষমা চেয়ে যাচ্ছিলেন তার ব্যাগ থেকে বেরিয়ে আসছিল এসব কিছু।

কিন্তু হোটেলের কর্মীরা তার পরিবারের কারও কোনও কথাই শুনলেন না। হোটেলের গেটে তল্লাশির পর প্রচণ্ড অপমানিত হতে হল এক ভারতীয় পরিবারকে।

আরও পড়ুন