হবিগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি

হবিগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি দিকে। হবিগঞ্জ সদর, আজমিরীগঞ্জ, বানিয়াচং, নবীগঞ্জ, লাখাই, মাধবপুর, ও চুনারুঘাট উপজেলা থেকে বন্যার পানি ধীর গতিতে নামতে শুরু করেছে।

এদিকে পানি কমতে শুরু করলে ও সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ বাড়ছে। সরজমিনে দেখা যায় রবিবার দুপুরের দিকে বৃষ্টি হলেও পরে রোদ্রের দেখা মিলে। তবে বাড়ির আশপাশে এখানো জমে আছে বন্যার পানি। সড়কগুলোও নিমজ্জিত ফলে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে লোকজন বাড়ি ফিরতে পারছে না।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানাগেছে, পাহাড়ি ঢল ও কুশিয়ারা নদীর পানিতে জেলার ৭টি উপজেলার ৫১টি ইউনিয়নের প্রায় ৭ লাখ মানুষ পানিবন্দি, এসব মানুষের জন্য ইতিমধ্যে ২৫৩টি আশ্রয় কেন্দ্রে ৩৫ হাজার মানুষ আশ্রয় নিয়েছে।

 

এদিকে বন্যার পানিতে ডুবে শিশুসহ জেলায় এ পর্যন্ত ৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। অপরদিকে বন্যার কারণে হবিগঞ্জের ৬ টি উপজেলার ২শ গ্রামে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ আছে। এতে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গ্রাহকরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। এ অবস্থায় চুরি-ডাকাতিসহ বিষধর সাপ  আতঙ্ক বিরাজ করছে। হবিগঞ্জ জেলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সূত্রে জানা যায় বন্যার কারণে ১৮৮ গ্রামের ২০ হাজার ৮৯০ জন গ্রাহক বিদ্যুৎ সংযোগ  থেকে বঞ্চিত রয়েছে।

আরও পড়ুন