খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি-হানিফ

advertisement

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া নিজেকে সুস্থ মনে করছেন বলেই হয়তো চিকিৎসা নিতে চাইছেন না।

তিনি বলেন, ‘তিনি (খালেদা জিয়া) নিজেকে সেই পরিমাণ অসুস্থ মনে না করলে তো চিকিৎসা নিতে অনীহাবোধ করবেনই। আমি যদি সুস্থ থাকি, আমাকে কেউ জোর করে চিকিৎসা দিতে চাইলে আমি কি চিকিৎসা নেব?’

হানিফ বলেন, আমিও হয়তো চিকিৎসা নিতে অনীহা প্রকাশ করব। উনি (খালেদা) হয়ত নিজেকে সুস্থ মনে করেছেন বা চিকিৎসা নেওয়ার কোন কারণ নেই মনে করছেন, এই মুহূর্তে তার চিকিৎসার প্রয়োজন নেই মনে করেছেন। সেই কারণে তিনি অনীহা প্রকাশ করতেই পারেন।

আওয়ামী লীগের অন্যতম মুখপাত্র মাহবু-উল আলম হানিফ রবিবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে দলের এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

এ সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ এমপি, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হারুন-অর রশিদ ও কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য এস এম কামাল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, বেগম খালেদা জিয়া একজন দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি। তার সমস্ত কিছুর দায়ভার কারা কর্তৃপক্ষের। কোন কয়েদি অসুস্থ হলে কারাবিধি অনুযায়ী কারা কর্তৃপক্ষ তার চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকেন।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেওয়ার জন্য কারা কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন সময়ে নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন। তারই অংশ হিসেবে দেশের স্বাস্থ্যসেবার সর্বোচ্চ প্রতিষ্ঠানে তাকে নিয়ে এসেছেন। এরপর আর তার চিকিৎসার ব্যাপার নিয়ে কারো কোন অভিযোগ থাকার কথা নয়।

You might also like

advertisement