নিউজিল্যান্ডের মসজিদে বাংলাদেশি নিহত ৩

advertisement

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় তিন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে। তবে নিহতদের সবার পরিচয় জানাতে পারেনি।

যদিও নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের অনারারি কনসাল শফিকুর রহমান জানিয়েছেন, দুইজন বাংলাদেশির পরিচয় সম্পর্কে এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া গেছে। নিহতদের একজন ড. আবদুস সামাদ, যিনি আল নূর জামে মসজিদের মোয়াজ্জিন হিসেবে কাজ করতেন। এক সময় তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। নিহত অন্যজন হলেন হোসনে আরা পারভীন। তিনি একজন গৃহবধূ ছিলেন। অসুস্থ স্বামী ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে নিয়ে তিনি ওই মসজিদে গিয়েছিলেন। নিহত তৃতীয় ব্যক্তির বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের স্থায়ী দূতাবাস নেই, অনারারি কনসাল ইঞ্জিনিয়ার শফিকুর রহমান থাকেন অকল্যান্ডে। সেখান থেকে তিনি ক্রাইস্টচার্চের বাংলাদেশি কমিউনিটির সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন। আজ শনিবার তিনি ক্রাইস্টচার্চে যাবেন।

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মকর্তারা জানান, শুক্রবার জুমার নামাজ পড়তে অনেকেই আল নূর মসজিদে গিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে কয়েকজন না ফেরায় পরিবারের সদস্যরা ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন। কিন্তু না পেয়ে খোঁজ নিতে শুরু করেন।

পরে হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় কয়েকজনের ভর্তি হওয়ার খবর পাওয়া যায়। তাদের মধ্যে তিনজন মারা যান। এছাড়া আরও দুইজন গুরুতর আহত অবস্থায় রয়েছেন। তবে নিউজিল্যান্ডের সরকার বা পুলিশের পক্ষ থেকে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ হাইকমিশনকে কিছু জানানো হয়নি।

এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম যাতে নির্ধারিত সময়ের আগে নিরাপদে নিউজিল্যান্ড ছাড়তে পারে সেজন্য হাইকমিশন যোগাযোগ করছে।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশি কমিউনিটিকে শান্ত থাকার, বড় ধরনের সমাবেশ এড়িয়ে চলার এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নির্দেশ মেনে চলার জন্য হাইকমিশনের পক্ষ থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে যে কোনো তথ্য বা সাহায্যের জন্য ক্যানবেরায় বাংলাদেশ হাইকমিশনে তারা যোগাযোগ করতে পারবেন। জরুরি যোগাযোগের জন্য যে দুটো নম্বরে ফোন করা যাবে, সেগুলো হলো +৬১ ৪২৪ ৪৭২৫৪৪ এবং +৬১ ৪৫০১৭৩০৩৫।

You might also like

advertisement