ক্রিকেটারদের মানসিক সহায়তা দেবে বিসিবি

advertisement

নিউজিল্যান্ড থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নিরাপদে ফেরত আসার পর তাদের মানসিক স্বাস্থ্যের দিকে নজর দেবার কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। শুক্রবার জুমআর নামাজের সময় মসজিদে এই হামলার ঘটনা ঘটে। যেই হামলায় একটুর জন্য প্রাণে বেঁচে যান ক্রিকেটাররা।

তাই শনিবার থেকে শুরু হতে যাওয়া ম্যাচটি বাতিল করে সেদিন রাতেই দেশে ফিরে বাংলাদেশ দল। ক্রিকেটারদের নিরাপদে ফেরা উপলক্ষে আজ সোমবার দলের খেলোয়াড়দের জন্য একটি মিলাদ অনুষ্ঠান আয়োজেন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

মিলাদ শেষে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, এরকম একটি সহিংস ঘটনা প্রত্যক্ষ করার পর ক্রিকেট বোর্ড বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের জন্য মানসিক সহায়তা দেয়ার ব্যবস্থা নেয়ার কথা চিন্তা করছে। তিনি বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে মানসিক ব্যবস্থা নেয়ার কথা ভেবেছি। সামনে বিশ্বকাপ, একজন মনোবিদের সাথে কথা বলে সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জানা হবে, প্রত্যেক ক্রিকেটারকে এনালাইসিস করা হবে।’

এদিকে ক্রাইস্টচার্চের ঘটনার পর বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। নিরাপত্তার প্রশ্নে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলেন, ‘পাকিস্তানে যখন মেয়েরা খেলতে গিয়েছিল তখন আমরা জাতীয় নিরাপত্তা পর্ষদের পরামর্শ নিয়েছিলাম। কিন্তু এখানে নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া বা ইংল্যান্ডের মতো জায়গায় নিরাপত্তা কিন্তু নামমাত্র। সেখানে প্রধানমন্ত্রী বা রাষ্ট্রপতির জন্যও নিরাপত্তা নামমাত্র। একেক দেশে নিরাপত্তার ধারণা ভিন্ন।’

তবে এরকম একটি ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর নিরাপত্তার বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব পাবে বলে ধারণা বিসিবি সভাপতির। ১৫ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার পর এক সংবাদ সম্মেলনে মি. নাজমুল হাসান নিশ্চিত করেছিলেন যে এরপর থেকে ক্রিকেট দলের যে কোনো সফরে বিসিবি বিশেষ নিরাপত্তা দাবি করবে।

ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার সময় ঘটনাস্থলের ৫০ গজের মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের কয়েকজন। গুলি যখন শুরু হয়, বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা তখন মসজিদের বাইরেই ছিলেন বলে জানিয়েছিলেন দলের ম্যানেজার খালেদ মাসুদ পাইলট। পরে একটি পার্কের ভেতর দিয়ে টিম বাসে উঠে যান তারা। এই ঘটনার পরদিনই নিউজিল্যান্ড থেকে বাংলাদেশে ফিরে আসে ক্রিকেট দল।

You might also like

advertisement