বিবিসি হামলাকারীকে সন্ত্রাসী বলছে না

advertisement

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামালার ঘটনাকে বৃটিশ সংবাদ সংস্থা বিবিসি সন্ত্রাসী হামলা বা জঙ্গি হামলা না বলায় ব্যাপকভাবে সমালোচনার মুখে পড়েছে। সংবাদ সংস্থাটির সাবেক এডিটর রিফাত জাওয়াদ ছাড়াও অনেক পাঠক এর কড়া সমালোচনা করেন।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে গত শুক্রবারে দুইটি মসজিদে এক বন্দুকধারীর হামলায় ৫০ জন মুসল্লি নিহত হন। এছাড়া গুরুতর আহত হয় আরো ৪০ জনের বেশি। তবে এ হামলার পর বিবিসির তাদের খবরে এই ঘটনাকে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে গোলাগুলি হিসেবে উল্লেখ করে।

রিফাত জাওয়াদ তার টুইটারে বলেন, লজ্জা বিবিসি, আপনারা সাংবাদিকতাকে কলঙ্কিত করেছেন। আপনাদের এখন ‘স্কাইনিউস’ থেকে সাংবাদিকতা শেখা দরকার।

তিনি আরো বলেন, আপনাদের এমন সংবাদ পরিবেশনায় আমি বিবিসির একজন সাবেক এডিটর হয়ে হতাশ। নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার পর অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী একে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। কিন্তু আপনাদের টেলিভিশন চ্যানেল ও অনলাইন এডিটরস এটাকে কেবল একটা মসজিদে হামলা হিসেবে উল্লেখ করেছে।

এছাড়া লন্ডনে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত হামিদ বাইডেনজাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলেন, লন্ডনে ছুরি দিয়ে হামলা করলেও সেটা সন্ত্রাসী হামলা কিন্তু নিউজিল্যান্ডের ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড বিবিসির জন্য শুধু একটা হামলা।

এছাড়া এমন পক্ষপাত মূলক সংবাদ পরিবেশনার জন্য অনেক পাঠক বিবিসি’র কড়া সমালোচনা করছেন।

অন্যদিকে একইভাবে পাঠকদের কড়া সমালোচনার মুখে পড়েছে আরেক সংবাদ মাধ্যম গার্ডিয়ান। গার্ডিয়ানও নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলাকে কেবল ‘ক্রাইস্টচার্চে গোলাগুলি’ উল্লেখ করে সংবাদ পরিবেশন করে।

২০১৭ সালে লন্ডনে ওয়েস্টমিনিস্টার ব্রিজের ওপর এবং পার্লামেন্টের বাইরে হামলাকে সন্ত্রাসী হামলা উল্লেখ করে সংবাদ পরিবেশন করে। ওই হামলায় হামলাকারী সহ ৬ জন নিহত হয়েছিল।

You might also like

advertisement