১১ বছরের সংসারের ইতি টানতে যাচ্ছেন শিল্পা শেঠী

advertisement

বলিউড তারকাদের বিয়ের খবরে যেমন চমক থাকে, খুব ঢাকঢোল পিটিয়ে জানান দেওয়া হয়, তেমনি তারকাদের সংসার ভাঙনের খবরেও থাকে মানুষের ঔত্সুক্য, থাকে রহস্য। তেমনি এক রহস্যজালে আটকে আছে শিল্পা শেঠীর সংসার। পরিচিত অনেকের বরাত দিয়েই জানা গেছে, ১১ বছরের সংসারের ইতি টানতে যাচ্ছেন তিনি।

তবে কী এটাও ছিল তাসের ঘর! বলিউডের অভিনেত্রী শিল্পা শেঠী ২০০৯ সালে বিয়ে করেন শিল্পপতি রাজ কুন্দরকে। বিলাসবহুল জীবনযাপন তাদের। তারপরও শান্তি নেই সংসারে। এ কারণে বিচ্ছেদের পথে হাঁটছেন শিল্পা।

গেল কয়েকদিন ধরেই ভারতের গণমাধ্যমগুলোতে আলোচিত হচ্ছে এই নায়িকার বিচ্ছেদের খবর। সেখানে বলা হচ্ছে, স্বামী রাজ কুন্দরের সঙ্গে ঝামেলা চলছে শিল্পার। সম্ভবত আর একসঙ্গে থাকা হচ্ছে না তাদের। এর নেপথ্য কারণ রাজ কুন্দর অবৈধ সম্পর্ক।

এই ঘটনার শুরু হয় মূলত গেল সপ্তাহে, যার নেপথ্যে রয়েছেন অনুরাগ বসু। সুপার ড্যান্সার ৩-এর সেটে শিল্পার ফোন নিয়ে তার মা সুনন্দা শেঠীকে একটা ম্যাসেজ করেন অনুরাগ। যেখানে লেখা ছিল শিল্পা রাজ কুন্দরকে ডিভোর্স দিতে চলেছেন। এ মেসেজের ব্যাপারে কিছুই জানতেন না শিল্পা। তার মা তাকে জানান যে, অনুরাগ তাকে ক্ষুদেবার্তা পাঠিয়েছেন তার ডিভোর্সের ব্যাপারে। সঙ্গে সঙ্গে অনুরাগের কাছ থেকে ফোন কেড়ে নিয়ে শিল্পা তার মাকে মূল ঘটনাটি জানিয়ে দেন। বলেন, অনুরাগ দুষ্টুমি করে এমনটি করেছে। কিন্তু এটি নিছক মজার ছলে হলেও আসলেই খুব একটা ভালো নেই শিল্পা-রাজের সংসার। ভারতের কয়েকটি গণমাধ্যমের মতে, শিল্পার স্বামী রাজের বেশিরভাগ সময় কাটে ব্যবসা নিয়ে। তল্পি-তল্পা নিয়ে অফিসকেই নাকি বাড়ি বানিয়ে ফেলেছেন তিনি। আর অফিসে অন্য নারীর অনুপ্রবেশও বেড়েছে বলে ধারণা শিল্পার। এ থেকেই সন্দেহের শুরু এবং এ কারণেই মূলত তাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়েছে। এর পরিণতিতে দুজনের বিচ্ছেদ পর্যন্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে!

অথচ ঠিক দুবছর আগে এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে শিল্পা বলেন, বৈবাহিক জীবনে যত ঝামেলাই আসুক না কেন, তা মিটিয়ে ফেলা উচিত। আর সম্পর্ককে টিকিয়ে রেখেই তা করা উচিত, তালাক দিয়ে নয়। সফল বিয়ের ক্ষেত্রে বিশ্বাস ও শ্রদ্ধাবোধ খুব জরুরি বিষয়। বিয়ে বিষয়টাকে সহজ, স্বাভাবিক রাখা উচিত। কখনো যেন মনে না হয়, ঝামেলা এড়ানোর জন্যই বিয়ে করেছেন আপনি।’

দুবছর আগের এই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার দিয়ে শিল্পার অনেক ভক্ত বিষয়টি মনে করিয়ে দিচ্ছে তাকে। এছাড়া অনেকে শিল্পার কঠোর সমালোচনাও করছেন।

২০০৯ সালে ব্যবসায়ী রাজ কুন্দরকে বিয়ে করে পরিবারের ব্যবসা আর সংসার নিয়ে ব্যস্ত হয়ে যান শিল্পা। এরপর ২০১২ সালে তার কোল আলো করে পুত্র সন্তানের জন্ম হওয়ার পর তো তার যেন আর দম ফেলারও ফুরসত ছিল না। ২০১৪ সালে প্রযোজক হিসেবে ‘ডিশকিয়া’ সিনেমার ‘তু মেরে টাইপ কা নেহি’ গানে অল্প কিছুক্ষণ থাকলেও সেটি তেমন আলোচিত হয়নি। এরপর বলিউডে আবারো অনুপস্থিত হয়ে পড়েন শিল্পা।

You might also like

advertisement