চীনের রাসায়নিক কারখানায় বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা ৬৪

advertisement

পূর্ব চীনের একটি রাসায়নিক কারখানায় তীব্র বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬৪ জনে দাঁড়িয়েছে। এতে আহত হয়েছে ৬০০ জনের বেশি। দেশটির পক্ষ থেকে শনিবার এই তথ্য জানানো হয়।

ইয়্যানচেংয়ের মেয়র চাও লুবাও শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, নিহতদের মধ্যে ২৬ জনের পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে।এছাড়া শনিবার ওই কারখানা থেকে আরো একজনকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় দুপুর ২.৫০ মিনিট নাগাদ পূর্ব চীনের জিয়াংসু প্রদেশের ইয়্যানচেংয়ের তিয়ানজিআই কেমিক্যাল সংস্থার কারখানায় তীব্র বিস্ফোরণ ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে, সাম্প্রতিক কালে চীনে এত বড় শিল্প দুর্ঘটনা ঘটেনি।

দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দুর্ঘটনাস্থলে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন ও উদ্ধারকর্মীরা আগুন নেভাতে কাজ করে। এছাড়া বিপুল সংখ্যক নিরাপত্তা কর্মীকেও সেখানে মোতায়েন করা হয়েছিল।

দেশটির স্থানীয় সময় শুক্রবার ৩ টা নাগাদ আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে দমকলকর্মীরা।

খবরে বলা হয়েছে, ১৬টি হাসপাতালে ৬৪০ জন আহত ব্যক্তিকে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং আহতদের চিকিৎসা দিতে সব ধরনের যেন ব্যবস্থা নেয়া হয় তার নির্দেশ দিয়েছেন। শি বর্তমানে রাষ্ট্রীয় সফরে ইতালিতে রয়েছেন।

চীনের সরকারি সংবাদসংস্থা জিংহুয়া জানিয়েছে, এক রাসায়নিক সার কারখানায় রাসায়নিকের বিস্ফোরণ থেকেই প্রথমে আগুন ছড়ায়। বিস্ফোরণের জেরে কারখানা চত্বরের বেশ কিছু নির্মাণ ভেঙে পড়েছে। আগুনের শিখা কারখানার ছাদ পর্যন্ত উঠতে দেখা গেছে। ঘন কালো ধোঁয়ায় ঢেকে গেছে গোটা এলাকা।

এছাড়া বিস্ফোরণ ঘটার সময় কিছু দূরের লিয়াংইয়ুংগ্যাং শহরে মৃদু ভূমিকম্পও অনুভূত হয়েছে। রিখটার স্কেলে কম্পনে মাত্রা ছিল ২.২। তথ্য সূত্রঃ সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট, টাইমস অব ইন্ডিয়া, বিবিসি।

You might also like

advertisement