গাংনীতে ভোট কেন্দ্রে সংঘর্ষে আহত সাতজন

advertisement

গাংনী উপজেলার পৃথক দুই ভোট কেন্দ্রে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে সাতজন আহত হয়েছেন। রবিবার সকাল ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন-উপজেলার চেংগাড়া গ্রামের মৃত জলিল মালিথার ছেলে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নৌকা সমর্থক কামাল হোসেন (৪০), দাউদ হোসেনের ছেলে নৌকা সমর্থক মহিবুল ইসলাম (৩৫),আব্দুল লতিফের ছেলে নৌকা সমর্থক শাহীন হোসেন (৩৫),একই গ্রামের আরেফিন আলীর ছেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী সমর্থক ফয়সাল হোসেন (৩৪) ও তার ভাই ফিরোজ আলী (৩৬)। এছাড়াও উপজেলার বাঁশবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক গিয়াস উদ্দীন ও তার ছেলে ওবাইদুল্লাহ (২৫) আহত হন।

স্থানীয়রা জানান, সকাল পৌনে ৯টার দিকে বাঁশবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে বাধ্য করাকে কেন্দ্র স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা করা হয়।

অন্যদিকে সকাল পৌনে ১০টার দিকে চেংগাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা মার্কা প্রতীকে ভোট দিতে বাধ্য করাকে কেন্দ্র দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দুটি ঘটনার উভয়পক্ষের আহতদের গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গাংনী থানার ওসি (তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

You might also like

advertisement