গণমাধ্যমে যা বললেন ডিম বালক

advertisement

অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ফাটিয়ে বিশ্বজুড়ে ‘হিরো’ তকমা পাওয়া উইল কনোলি অবশেষে প্রথমবারের মত গণমাধ্যমের মুখোমুখি হলেন। অস্ট্রেলীয় সম্প্রচারমাধ্যম চ্যানেল টেন-কে সোমবার এক সাক্ষাৎকার দেন কনোলি (১৭)।

সাক্ষাৎকারে কনোলি বলেন, এক ঘণ্টা ধরে ফ্রেজারের বক্তব্য শোনার পর আমি তাঁর মাথায় ডিম ভাঙার সিধান্ত নিই।

তবে কনোলি বলেন, আমি যা করেছি তা ঠিক ছিল না, কিন্তু সেই ঘটনা মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করেছে।

তিনি আরো বলেন, সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিংয়ের বক্তব্যের প্রতিবাদ করায় আমার মা খুশি হয়েছেন কিন্তু তিনি প্রতিবাদের ধরন পছন্দ করেননি।

বিশ্বখ্যাত ডিম বালক সাক্ষাৎকারে আরো বলেন, ওই সিনেটর যে আমার দিকে এভাবে তেড়ে আসবেন তা আমার কল্পনায় ছিল না।

এছাড়া এই ঘটনা বিশ্বজুড়ে এত আলোড়ন সৃষ্টি কররে তা চিন্তা করিনি বলেন কনোলি।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে গত ১৫ মার্চ দুই মসজিদে ভয়াবহ হামলা হয়। সেই হামলায় রক্তাক্ত হয়ে উঠে মসজিদ। হামলায় নিহত হন ৫০ জন।

আর এই হামলার দায় মুসলিম অভিবাসীদের উপর চাপিয়ে বিতর্ক উসকে দেন অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিং। এর প্রতিবাদ জানিয়ে সিনেটরের মাথায় ডিম ভাঙেন কলোনি।

কনোলির পক্ষে আইনি লড়াই ও আরো ডিম কেনার তহবিলে ইতিমধ্য জমা পড়েছে বাংলাদেশি মুদ্রায় ৬৭ লাখের বেশি টাকা। কলোনি ঘোষণা দিয়েছেন এসব অর্থ ক্রাইস্টচার্চে হামলায় নিহত মুসলিম পরিবারদের দান করা হবে।

অবশ্য শেষ পর্যন্ত কোনও অভিযোগ গঠন ছাড়াই কারামুক্তি পান উইল কনোলি।

You might also like

advertisement