পর্তুগালে বাংলাদেশ দূতাবাসে গণহত্যা দিবস পালিত

advertisement

যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সাথে ১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চ কালরাতে সংঘটিত ইতিহাসের জঘন্যতম গণহত্যায় নিহতদের স্মরণে পর্তুগাল দূতাবাসে এক ‘শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ও স্মরণসভা’র আয়োজন করা হয়।

২৫শে মার্চ সন্ধ্যায় রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও দূতালয় প্রধান মো. হাসান আব্দুল্লাহ তৌহিদের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী বাংলাদেশী নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক এবং দূতাবাসের সকল কর্মকর্তাবৃন্দ।

বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বের সূচনা হয়। এরপর গণহত্যা দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শোনানো হয়।
গণহত্যা দিবসের অলোচনা শুরুর আগে গণহত্যার ওপর নির্মিত ‘একাত্তরের গণহত্যা ও বধ্যভূমি’ শীর্ষক একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হয়। এরপর দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনায় অংশ নেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা ও দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ।

আলোচনা শেষে ২৫ মার্চের কালোরাতে নিহত সকলের আত্মার মাগফেরাত করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে, গণহত্যায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মোমবাতি প্রজ্বলন করা ও এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। সবশেষে, এক মিনিটের জন্য সকল আলো নিভিয়ে ‘নিষ্প্রদীপ কর্মসূচী’ পালন করা হয়।

You might also like

advertisement