প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিক মনিটরিং দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন: তথ্যমন্ত্রী

advertisement

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বনানীতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা সার্বক্ষণিকভাবে মনিটরিং করছেন ও প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন,বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) বিকালে ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী নেতা এস এম কামাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, মারুফা আক্তার পপি, রেমন্ড আরেং, শামসুন নাহার চাঁপা প্রমুখ।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বনানীতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা সার্বক্ষণিকভাবে মনিটরিং করছেন। প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তাদের সঙ্গেও কথা বলে পদক্ষেপ নিতে বলছেন। আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

এরপর মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের বিষয়ে তিনি বলেন, রিজভীরা দিনে তিনবার করে কথা বলেন আবার বলেন দেশে গণতন্ত্র নাই, কথা বলার অধিকার নাই। খালেদা জিয়া কারাগারে যেসব সুযোগ-সুবিধা পেয়েছেন এবং পাচ্ছেন, দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত আসামিরা এমন কোনো সুযোগ-সুবিধা পায় না। উপমহাদেশের ইতিহাসে এমন নজির নেই। রিজভী সাহেব একবার বলেন পরিত্যক্ত কারাগার ভবনে খালেদা জিয়াকে রাখা হয়েছে। আবার যখন তাকে নতুন কারাগারে স্থানান্তরের চেষ্টা চলছে তখন তিনি বলছেন নির্মাণাধীন কারাগারে খালেদা জিয়াকে রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। তাহলে কি খালেদা জিয়াকে পাঁচতারকা হোটেলে রাখতে হবে?

পরে বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কেবিন খালি রাখা হয়েছিল। কিন্তু সেখানে তিনি যাননি। যে হাসপাতালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জীবন সংকটাপন্ন অবস্থায় ভর্তি হয়েছিলেন সেই হাসপাতালে খালেদা জিয়া চিকিৎসা নেবেন না। তাহলে প্রশ্ন জাগে বঙ্গবন্ধুর নামের সঙ্গে হাসপাতালের নাম জড়িত বলে কি তিনি চিকিৎসা নেবেন না?

You might also like

advertisement