সারাদেশে দমকা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কা

advertisement

সারাদেশে আজকেও দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। সেই সাথে থাকতে পারে বজ্রসহ বৃষ্টি এবং শিলাবৃষ্টি।

সোমবার সকাল ৯টায় এমন তথ্য দেন আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক।

তিনি জানান, আজ রাত ১২ টা হতে পরবর্তী ৯ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে অস্থায়ী দমকা/ঝড়োহাওয়া ও শিলাবৃষ্টিসহ বৃষ্টি/ বজ্রবৃষ্টি হতে পারে।

তিনি আরও জানান, রবিবার সন্ধ্যা থেকে সোমবার ভোর পর্যন্ত ঢাকায় ৩৮ মি.মি. বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে।

সোমবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তর একবিজ্ঞপ্তিতে জানায়,রংপুর, রাজশাহী, বগুড়া, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারিপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, সিলেট, কুমিল্লা, নোয়াখালী, বরিশাল, পাবনা, পটুয়াখালী এবং চট্টগ্রাম অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০-৮০ কি:মি: বেগে অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। সেই সাথে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদী বন্দরসমূহকে ২ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারী সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যায় মৌসুমের প্রথম কালবৈশাখী ছোবলে ঢাকায় গাছচাপা, ইটের আঘাত, দেয়ালচাপা এবং নৌকাডুবিতে দুই নারীসহ আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে বুড়িগঙ্গা নদীতে নৌকাডুবিতে নারী ও শিশুসহ চার জনের মৃত্যু হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুৎ চলে যায়। ঝড়ের আগে দমকা হাওয়ার সঙ্গে বজ্র ও প্রচণ্ড ধূলিঝড় বয়ে যায়। এরপরই শুরু হয় কালবৈশাখীর তাণ্ডব। এ সময় বাতাসের গতি ছিল ৭৪ কিলোমিটার। পরে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হয়। ঝড়ের কবলে পড়ে আহত হয়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন অন্তত ১৮ জন।

You might also like

advertisement