নির্বাচনী প্রচারে চমক অভিনেত্রী হেমা মালিনী

advertisement

গমের ছড়া ভর্তি মাঠ, সোনালী মাঠের রঙের আদলে নিজের পরনে শাড়ি, হাতে কাস্তে। নির্বাচনী প্রচারে চমক দিতে এভাবেই দেখা গেল অভিনেত্রী ও বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনীকে। গত রবিবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের মথুরার একটি কৃষি জমি থেকে নির্বাচনী প্রচার শুরু করলেন এই অভিনেত্রী। ২০১৪ সালে এই কেন্দ্র থেকে প্রায় ৩ লাখ ৩০ হাজার ভোটে জিতেছিলেন হেমা।

তিনি জানান ‘স্থানীয় মানুষজন আমাকে সাদরে অভ্যর্থনা জানিয়েছেন। তারা আমাকে স্বাগত জানিয়েছেন কারণ আমি মথুরার মানুষের জন্য অনেক কিছু করেছি। আর সে জন্য আমি যথেষ্ট গর্বিত। আগামী দিনে আরও উন্নয়ন করাই আমার একমাত্র লক্ষ্য।’ তার দাবি, ‘আমার আগে মথুরার জন্য কেউ এত কাজ করেনি।’

কাস্তে হাতে কৃষি জমিতে কাজ করার বেশ কয়েকটি ছবি হেমা নিজেই তার ট্যুইটারে পোস্ট করেছেন। সেখানে তিনি লেখেন ‘লোকসভার নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলাম। কৃষি জমিতে যেখানে স্থানীয় নারীদের সাথে জমিতে কাজ করার এবং কথা বলার অভিজ্ঞতা হল।
যদিও বিরোধীরা তাকে ‘বহিরাগত’ তকমা দিয়েছে। উত্তরপ্রদেশের মহাজোটের নেতারা বলেছেন মথুরাবাসী এবার ‘বহিরাগত’ ও ‘ব্রজবাসী’র লড়াই দেখবে। কারণ হেমা মালিনী আদতে মুম্বাইয়ের বাসিন্দা। হেমাও পাল্টা জানিয়েছেন ‘হ্যাঁ, আমি মুম্বাইতে থাকি। তাতে সমস্যা কোথায়? আমার এখানেও একটি বাড়ি আছে এবং আমিও একজন বৃন্দাবনবাসী।’

হেমা আরও জানান ‘আমি এই শহরটার সাথে খুব একাত্ম হয়ে গিয়েছি। আমি এখানে ঐশ্বরিক সংযোগ অনুভব করি। আমি জীবনভর রাধা এবং মীরার চরিত্রে পারফর্ম করেছি। প্রার্থী হিসাবে যখন আমার নাম ঘোষণা করা হয়, সেই সময়েও আমি একটি মন্দিরে দাঁড়িয়েছিলাম।’

তার অভিমত ‘আমি এই মথুরাতে ২৫০ বারেরও বেশি এসেছি। মুম্বাই থেকে সবসময় এখানে আসা সহজ কথা নয়। আমি মানুষকে বলেছি, আমি ভগবান কৃষ্ণের ভক্ত, আমি একজন ব্রজবাসী।’

তবে এবারই শেষ, এরপর আর নির্বাচনে প্রার্থী হবেন না বলে ইতিমধ্যেই ঘোষনা দিয়েছেন হেমা। আসন্ন নির্বাচনে তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে লড়াই করছেন রাষ্ট্রীয় লোক দলের কানওয়ার নরেন্দ্র সিং। আগামী ১৮ এপ্রিল দ্বিতীয় পর্বে মথুরাতে নির্বাচন হবে। গণনা আগামী ২৩ মে।

You might also like

advertisement